ময়মনসিংহের ত্রিশালে বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেলের ২ আরোহী নিহত

প্রকাশিত : জুন ২, ২০২২ , ৭:৩২ অপরাহ্ণ

মোঃ আজিজুর রহমান ভূঁঞা বাবুল, ব্যুরো প্রধান, ময়মনসিংহ, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন:জেলার ত্রিশালে বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেলের ২ আরোহীর মৃত্যু হয়েছে। সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন, জেলার ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মাইজবাগ ইউনিয়নের তেরছাটি গ্রামের মৃত আব্দুল হেলিমের ছেলে মোঃ আবু বকর সিদ্দিক (৪০) ও একই উপজেলার পৌর সদরের দত্তপাড়া গ্রামের শফিকুর রহমানের মেয়ে আইরিন (৩০)। আবু বকর সিদ্দিকের বিবাহিত জীবনে দুই ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে। তবে এখনো নিহত দু’জনের মধ্যে কি সম্পর্ক তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। বৃহস্পতিবার (০২ জুন) দুপুর দেড়টার দিকে ময়মনসিংহের ত্রিশাল-বালিপাড়া আঞ্চলিক সড়কের শেখ বাজার এলাকায় এ সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বালিপাড়া থেকে ছেড়ে আসা ত্রিশালমুখী শালবন পরিবহন ও ত্রিশাল থেকে ছেড়ে আসা মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল আরোহী দু’জন নিহত হন। এ বিষয়ে আবু বকর সিদ্দিকের প্রতিবেশী একজন জানায়, নিহত আবু বকর সিদ্দিক অটোরিকশার ব্যবসা করতেন। তিনি কখন, কি কারণে ত্রিশালের দিকে এসেছেন তা কাউকে জানাননি। নিহত আইরিনের ভাগনে সাকিব জানান, পারিবারিক-ভাবে আবু বকর সিদ্দিকের সঙ্গে আইরিনের কোনো সম্পর্ক নেই। তিনি ময়মনসিংহ শহরে থেকে লেখা পড়া করতেন এবং অনলাইন মার্কেটিং ব্যবসা করতেন। আইরিনের খালু মোঃ গোলাম খসরু বলেন, ‘আইরিন আমার বাসায় থেকে মুমিনুন্নেছা সরকারি কলেজে লেখা পড়া করত। ঈদের আগে সে বড় বোনের বাড়ি বেড়াতে উত্তরার দিয়া বাড়ি এলাকায় যায়। দীর্ঘদিন পর উত্তরা থেকে বাড়ি ফেরার পথে ত্রিশাল বালিপাড়া সড়কে দুর্ঘটনায় মারা যায়।’ ত্রিশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মাইন উদ্দিন জানান, নিহতদের শরীরের অধিকাংশ ছিন্নভিন্ন হয়ে গেছে। মোটরসাইকেল ও ঘাতক বাস বর্তমানে ত্রিশাল থানা হেফাজতে রয়েছে। চালত ও তাঁর সহযোগী পলাতক রয়েছেন। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।