বগুড়ায় পলিটেকনিক ছাত্রের খুনিদের গ্রেফতারে ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম

প্রকাশিত : জুন ৯, ২০২২ , ২:৫১ অপরাহ্ণ

নজরুল ইসলাম মিন্টু, বগুড়া জেলা প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন:বগুড়ায় পলিটেকনিক ছাত্র হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে মানবন্ধন হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৯ জুন) শহরের সাতমাথায় চারটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ও খুন হওয়া ছাত্র আল জামিউ বনীর সহপাঠীদের আয়োজনে এই মানবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় তারা হত্যাকারীদের গ্রেফতারে ৭২ ঘণ্টার সময় বেঁধে দেন। অন্যথায় সকল স্বেচ্ছাসেবী, শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষদের নিয়ে সাতমাথা অবরোধ ঘোষণা দেওয়া হয়।
মানবন্ধনে বিডি ক্লিন বগুড়া, বগুড়া সাইক্লিং ক্লাব, অনলাইন রক্তদান ও বগুড়া রানার নামের চারটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন অংশ নেয়। এসময় সংগঠনগুলোর নেতারা বলেন, দিবালোকে প্রকাশ্য জামিউকে খুন করা হলেও সাতদিনেও মূল অভিযুক্তরা কেউ গ্রেফতার হয়নি। কোন রকম অপরাধ ছাড়ায় মেধাবী এই ছাত্র ও সংগঠককে খুন করা হয়েছে। এর সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও সুষ্ঠ বিচার দাবি করেন তারা। মাবনবন্ধনে অংশ নেওয়া জামিউর সহপাঠীরা বলেন, ক্যাম্পাস এলাকা থেকে মাত্র ২০০ মিটার দূরে জামিউকে খুন করা হয়েছে। আমরা সবাই নিরাপত্তা হীনতায় আছি। এছাড়াও ৭ দিনেও কেন প্রশাসন জড়িতদের গ্রেফতার করতে পারেনি আমরা জানিনা। তবে যতোদিন আসামিরা গ্রেফতার হবেনা ততোদিন আন্দোলন চলবে৷
এরআগে ৩ জুন শুক্রবার বিকেলে প্রকাশ্য দিবালোকে পলিটেকনিক ছাত্র আল জামিউল বনিকে কলোনি বাজারে হত্যার ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় তার বাবা আনিছুর রহমান বাদী হয়ে শুক্রবার (৪ জুন) দিবাগত রাতে মামলা দায়ের করেন। মামলায় বগুড়া শহরের কলোনী লতিফপুর বিহারীপট্টি এলাকার ২৫ বছর বয়সী দুই যুবক আরিফ ও সোহানকে অভিযুক্ত করা হয়। এছাড়াও অজ্ঞাত হিসেবে অভিযুক্ত করা হয়েছে আরও তিন থেকে চারজনকে। এ ব্যাপারে বনানী পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাজ্জাদুল ইসলাম জানান, প্রাথমিকভাবে আমরা ধারণা করছি জামিউলের কোন বান্ধবীকে উক্তত্য বা প্রেম ঘটিত বিষয়ে হত্যাকান্ডটি সংগঠিত হয়েছে। এই ঘটনায় এজাহারনামীয় দুই আসামির সহযোগীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বর্তমানে তারা কারাগারে আছেন। পাশাপাশি ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে। ২২ বছরের আল জামিউ বনী মালতিনগরের আনিছুর রহমানের ছেলে। তিনি বগুড়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের কম্পিউটার সায়েন্সের পঞ্চম সেমিস্টারের শিক্ষার্থী। পাশাপাশি জামিউ গিনেস রেকর্ডধারী সাইক্লিস্ট ছিলেন। এছাড়াও তিনি একাধিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সঙ্গে কাজ করতেন। মানবন্ধনে বিডি ক্লিনের রাজশাহী বিভাগীয় সমন্বয়ক মাহবুব আলম জিয়ন, নন্দীগ্রাম উপজেলা সমন্বয়ক মোহম্মদ রাকিব, বগুড়া সাইক্লিং ক্লাবের কো-অর্ডিনেটর মোঃ নাজমুজ্জামান, অর্থ সম্পাদক রাহেল, অনলাইন রক্তদান সংগঠনের সভাপতি সোহেল রানা, সদস্য মিশু সরদার, বগুড়া রানারের এডমিন সোয়াইবসহ বগুড়া পলিটেকনিকের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন৷