আনন্দ ও মোহনা টিভির প্রতিনিধিকে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে বিএমএসএফ পাবনা জেলা শাখার মানববন্ধন

প্রকাশিত : জুন ২৩, ২০২২ , ৮:২২ অপরাহ্ণ

আবদুল জব্বার, উত্তরাঞ্চল প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: পাবনায় আনন্দ টিভি ও মোহনা টিভির পাবনা জেলা প্রতিনিধিকে পেশাগত দায়িত্ব পালনে বাঁধা, ক্যামেরা ছিনতাই ও লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে এবং জড়িতদের অতিদ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) পাবনা জেলা শাখা আয়োজনে পাবনা প্রেসক্লাবের সামনে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন চলাকালে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম পাবনা জেলা শাখার সভাপতি আলহাজ্ব ডা. আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, দৈনিক সালাম বাংলাদেশের প্রকাশক ও সম্পাদক প্রফেসর ড. এম এম কফিল উদ্দিন, বাসস ও ভোরের কাগজের পাবনা প্রতিনিধি রফিকুল ইসলাম সুইট, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম পাবনা জেলা শাখার সহ-সভাপতি এম.এ. সালাম, যুগ্ম সম্পাদক শফিক আল কামাল, জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার রাজশাহী বিভাগীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি আর কে আকাশ, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম পাবনা জেলা শাখার পাবনা জেলা শাখার আইন উপদেষ্টা মীর ফজলুল করিম বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পাদক জে.কে. প্রিন্স, দপ্তর সম্পাদক আদনান উদ্দিন, ইউএনএস পাবনার বার্তা সম্পাদক এস.এ. পারভেজ, মিডিয়া অ্যাসোসিয়েশন পাবনার সভাপতি সুমন আলী, অপরাধ বিচিত্রার পাবনা ব্যুরো প্রধান মো. মাহমুদ হোসেন, সিএনএফ টিভির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান খালেদ আহমেদ, দৈনিক সমাচারের পাবনা জেলা প্রতিনিধি রবিউল ইসলাম রনি; আলমগীর হোসেন অর্থ, দৈনিক গণকন্ঠের উপজেলা প্রতিনিধি কায়সার আহমেদ প্রমুখ। ঘটনার সাথে জড়িতদের অতিদ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চেয়ে কর্মসূচীর সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম পাবনা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মাহফুজ আলী কাদেরী, বিটিভির পাবনা জেলা প্রতিনিধি নজরুল ইসলাম বাঁধন, দৈনিক খবর বাংলার প্রকাশক শামীম হোসেন, মাই টিভির পাবনা জেলা প্রতিনিধি কামরুল ইসলাম। বক্তব্য-কালে বক্তাগণ পাবনায় আনন্দ টিভির প্রতিনিধি সেলিম মোর্শেদ রানা ও মোহনা টিভির পাবনা জেলা প্রতিনিধি হুজ্জাতুল হীরাকে ঈশ্বরদী উপজেলার বাঁশেরবাদা ডিগ্রী কলেজে পেশাগত দায়িত্ব পালনে বাঁধা, মোবাইল ক্যামেরা ছিনতাই ও লাঞ্ছিত করার সাথে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা গ্রহণ, জড়িতদের অতিদ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। না হলে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ আগামীতে দেশব্যাপী আরও কঠোর কর্মসূচী দেয়ার ঘোষণা দেয়। উল্লেখ্য ১৯ জুন রোববার দুপুরে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার বাঁশেরবাদা ডিগ্রী কলেজে সংবাদ সংগ্রহ-কালে কলেজের অধ্যক্ষের লেলিয়ে দেয়া দুষ্কৃতিকারী মুরাদগংদের হাতে লাঞ্ছিত হয়েছেন আনন্দ টিভি ও মোহনা টিভির পাবনা জেলা প্রতিনিধি। দুষ্কৃতিকারীরা তাদের লাঞ্ছিত ও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং মোবাইল ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়। সাংবাদিকরা বিষয়টি পাবনার পুলিশ সুপারকে অবহিত করলে তিনি দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠান। পুলিশ দুষ্কৃতিকারীদের কাছ থেকে সাংবাদিকদের উদ্ধার করে। এ ঘটনায় মোহনা টিভির সাংবাদিক হুজ্জাতুল্লা হীরা, আনন্দ টিভির পাবনা জেলা প্রতিনিধি সেলিম মোর্শেদ রানা বাদী হয়ে ঈশ্বরদী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এসময় দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদের পাবনা জেলা প্রতিনিধি খালেকুজ্জামান পান্নু, চ্যানেল ২৩ রাজশাহী বিভাগীয় প্রতিনিধি হুমায়ন রাশেদ, ঢাকা পোস্টের পাবনা প্রতিনিধি রাকিবুল ইসলাম রাকিব, পাবনা বার্তা ২৪ ডটকমের অ্যাডমিন প্রকৌশলী শামসুল আলম, দৈনিক উপাচারের পাবনা প্রতিনিধি তৌফিকুর রহমান, বাংলা খবর প্রতিদিনের আমানউল্লাহ আমান, পাবনার আলোর সংবাদদাতা মো. হুমায়ন, রেহানা পারভীন, ইমতিয়াজ আবির, কে.এম. আতিক হোসেন, দোলন, মোহাম্মদ নবীসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।