হালুয়াঘাটে কুয়া থেকে শিশুর মরদেহ উদ্ধার:বাবা মা আটক

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২২ , ৮:১২ অপরাহ্ণ

ময়মনসিংহ ব্যুরো, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার জুগলী ইউনিয়নের পূর্ব ঘিলাভূই গ্রামে বিশুদ্ধ পানির জন্য নির্মিত একটি কুয়া থেকে আয়েশা খাতুন (০২)নামে এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বিশুদ্ধ পানির ওই কুয়া থেকে ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় লাশটি উদ্ধার হয়। শিশু আয়েশা ওই গ্রামের বাদশা মিয়ার মেয়ে। এলাকাবাসী জানায়, মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার পূর্ব ঘিলাভূই গ্রামের বাদশা মিয়ার বসতভিটার সামনে বিশুদ্ধ পানির জন্য নির্মিত কুয়াতে শিশুটির লাশ রহস্যজনক-ভাবে ভেসে ছিল। পরবর্তীতে প্রথমে ৯৯৯-এর মাধ্যমে পুলিশ বিষয়টি জানতে পারে। পরে হালুয়াঘাট উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে পুলিশ। স্থানীয়দের ধারণা, এটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড হতে পারে। পারিবারিক কলহের জেরে রাতে কোনও এক সময় শিশুটিকে কুয়াতে ফেলে দেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। হালুয়াঘাট থানার এস আই আতাউর রহমান বলেন, নিহত আয়েশা খাতুনের বাবা বাদশা মিয়া ও মাতা আম্বিয়া খাতুনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। হালুয়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ শাহিনুজ্জামান খান বলেন, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় শিশুটির লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছি। তবে শিশুটি কীভাবে কূপে পড়ে মারা গেলো তা জানা যায়নি। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শিশুর মা, বাবা ও মামাকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন। বিস্তারিত পরে জানা যাবে বলে জানান ওসি।