কালীগঞ্জ থানার সার্ভিস ডেস্ক থেকে ৮ মাসে সেবা পেলেন ৩৪৫ জন

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২২ , ৬:৪২ অপরাহ্ণ

হেলালী ফেরদৌসী, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুলিশের দুটি মানবিক উদ্যোগের নারী, শিশু, বৃদ্ধ ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য দেশের সব থানায় ‘সার্ভিস ডেস্ক’ চালু হওয়ায় থানায় নারী, শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধীদের সেবায় সার্ভিস ডেস্ক নারীদের জন্য অন্যায়ের প্রতিকার চাওয়ার একটা সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে ।‘জাতির পিতার আকাঙ্ক্ষা ছিল বাংলাদেশের পুলিশ হবে জনগণের পুলিশ। আর পুলিশের এ দুটি উদ্যোগই গণমুখী হয়েছে। পুলিশ জনগণের আস্থা ও বিশ্বাস অর্জনে কাজ করে যাচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় শামিমা জাহান (ছদ্মনাম ) নামে এক মা কালীগঞ্জ থানায় এসেছেন এক বখাটে কর্তৃক মেয়েকে উৎপাত করার অভিযোগ নিয়ে। প্রথমে তিনি থানার মূল ভবনে প্রবেশের ডান পাশে অবস্থিত নারী, শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী সার্ভিস ডেস্কের সামনে থাকা চেয়ারে গিয়ে বসেন। এ সময় কর্মরত এস আই অরুবা সুলতানা মনোযোগ দিয়ে তার কথা শোনেন। সব শুনে তিনি একটি লিখিত অভিযোগ নেন। এরপর বিষয়টি তিনি থানার ওসিকে জানান। তখনই থানা থেকে পুলিশের একজন এসআইকে পাঠিয়ে ডাকা হয় অভিযুক্তকে। অভিযুক্ত বখাটে তার পরিবার ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সামনে মুচলেকা দিয়ে এ যাত্রা রক্ষা পায়। কালীগঞ্জ থানা পুলিশের এমন ত্বরিত পদক্ষেপে খুশি ওই নারী। তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরে ঐ বখাটে আমার মেয়েকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। স্থানীয় নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিদের কাছে বিচার দিয়েও সমাধান মিলেনি। নিরুপায় হয়ে থানায় এসেছিলাম। থানায় এমন সেবা পাব কখনও ভাবতে পারিনি। তাছাড়া আমাদের মত নারীদের সেবা প্রদানের জন্য কালীগঞ্জ থানায় আলাদা ব্যবস্থা রয়েছে সেটাও আমি জানতাম না। হ্যাঁ এটি ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ থানা পুলিশের নারী, শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী হেল্প সার্ভিস ডেস্কের সেবার একটি গল্প মাত্র। পুলিশের এই সেবায় ক্রমেই আস্থা বাড়ছে মানুষের। সারাদেশের ৬৫৯টি থানায় নারী, শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী সার্ভিস ডেস্ক স্থাপন করা হয়েছে। এই সার্ভিস ডেস্কে ধর্ষণ, নির্যাতন অথবা নিপীড়নের শিকার নারীরা সহজেই আইনি সেবা পাচ্ছেন। কালীগঞ্জ থানায় বিশেষ কয়েক শ্রেণীর মানুষের জন্য আইনি সহায়তা প্রদানকে এ এলাকার সাধারণ মানুষ সাধুবাদ জানাচ্ছে। ২০২২ সালের জানুয়ারি থেকে শুরু করে চলতি মাস অবধি এই থানার নারী, শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী সার্ভিস ডেস্ক ৩৪৫ জনকে আইনি সহায়তা প্রদান করেছে। সেবা গ্রহণকারীদের অধিকাংশই ছিলেন নারী। নারীরা সাধারণত পারিবারিক কলহ,ইভটিজিং, ব্ল্যাক-মেইলসহ নানা ধরনের অভিযোগ নিয়ে আসেন আইনি সহায়তা পাওয়ার আশায়। আর তাদেরকে সহায়তা করতে কালীগঞ্জ থানার এই হেল্প ডেস্ক এ সেবা প্রত্যাশীদের সার্বক্ষণিক সেবা প্রদানের জন্য নিয়োজিত রয়েছেন ১ জন নারী এস আই,১ জন নারী এ এস আই ও ২ জন নারী কনস্টবল। তারা প্রত্যেকেই অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। কালীগঞ্জ থানার নারী শিশু বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী সার্ভিস ডেস্কের দায়িত্বে থাকা নারী এস আই অরুবা সুলতানা জানান,আমার এখানে সেবা নিতে আসেন যারা তাদের মধ্যে নারীদের সংখ্যায় বেশি।বিশেষ করে নারীদের জন্য এই সার্ভিস ডেস্ক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে বলে আমি মনে করি।নারীরা তাদের সমস্যা গুলো আমাদের নিকট নিঃসংকোচে খুলে বলতে পারেন। তবে গত সপ্তাহে চুরি হওয়া একটি শিশু আমরা উদ্ধার করেছি,যেটি আমাদের কাজের একটি সফলতা। কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)আবদুর রহিম মোল্লা জানান,মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় জেলার প্রতিটি থানায় নারী, শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী সার্ভিস ডেস্ক চালু করা হয়েছে। থানা এলাকার নারী, শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী যে কোনও ব্যক্তি যে কোনও আইনগত সহায়তা পাবেন খুব সহজে এ সার্ভিস ডেস্ক থেকে।কালীগঞ্জ থানাতেও শুরু থেকে খুব গুরুত্বের সাথে এই সার্ভিস ডেস্ক থেকে সেবা প্রদান করা হচ্ছে।