নওগাঁর পত্নীতলায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে যুবকের মৃত্যু

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২২ , ১০:২৬ অপরাহ্ণ

আলহাজ্ব বুলবুল চৌধুরী, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: নওগাঁর পত্নীতলায় ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে ফারহান সাদিক জয় (২৬) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার রাতে জেলা সদর নওগাঁর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মারা যাওয়া তরুণ ফারহান সাদিক পত্নীতলা উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খাদিজাতুল কোবরা মুক্তা ও নজিপুর সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল মোত্তালেব লাইফ দম্পতির একমাত্র সন্তান। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ফারহান লেখাপড়া শেষ করে সম্প্রতি ঢাকায় একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে চাকরিতে যোগদান করেছেন। গত রবিবার ঢাকা থেকে নিজ বাড়ি নজিপুরে আসেন। ওই দিন রাতেই ফারহানের গায়ে জ্বর আসে। এরপর থেকে বাড়িতেই ফারহান চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। গত বৃহস্পতিবার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে পত্নীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে গেলে সেখানে পরীক্ষা করে তার শরীরে ডেঙ্গু ভাইরাস ধরা পড়ে। শুক্রবার তাকে জেলা সদর নওগাঁয় প্রাইম ল্যাব ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই রাত সাড়ে ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয়। শনিবার বাদ যোহর নজিপুর সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জানাজা নামাজ শেষে নজিপুর সরকারী গোরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়। এই আকস্মিক মৃত্যুতে স্বজনদের মাঝে এবং এলাকায় শোকার ছায়া বিরাজ করছে। পত্নীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ খালিদ সাইফুল্লাহ জানান, ফারহান ডেঙ্গুজ্বরের লক্ষণ নিয়ে গত বৃহস্পতিবার পত্নীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসলে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তার শরীরে ডেঙ্গু ভাইরাস ধরা পড়ে। তার ডেঙ্গু হেমোরজিক ফিভার ছিল। তার শরীরে রক্তের প্লাটিলেট ২৭ হাজারে নেমে এসেছিল। যেখানে একজন স্বাভাবিক মানুষের শরীরে প্লাটিলেট থাকার কথা দেড় লাখ থেকে তার অধিক। এমতাবস্থায় আমরা ফারহানকে তৎক্ষণাৎ রাজশাহী অথবা ঢাকা নেওয়ার জন্য পরামর্শ দিয়েছিলাম। কিন্তু স্বজনরা শুক্রবার তাকে নওগাঁর প্রাইম ল্যাব ক্লিনিকে ভর্তি করায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে তার মৃত্যু হয়।