চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিএসএফ’র গুলিতে একজন নিহত

প্রকাশিত : ডিসেম্বর ১৯, ২০২২ , ৮:০০ অপরাহ্ণ

আশরাফুল ইসলাম, নিজস্ব প্রতিনিধি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ সীমান্তে অবৈধ প্রবেশের সময় বিএসএফ’র গুলিতে এক বাংলাদেশী যুবক নিহত এবং একজন আহত হয়েছে। নিহতের পিতা বিএসএফের গুলিতে তার ছেলের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করলেও এ ব্যাপারে বিজিবি’র পক্ষ থেকে আহত বা নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়নি। রবিবার দিনগত গভীর রাতে জেলার শিবগঞ্জ সীমান্তের জোহরপুর ও ওয়াহেদপুর সীমান্তের মাঝখানে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তি উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের সরাপাড়া গ্রামের বাহারুলের ছেলে মোহাম্মদ শামিম (৩০) এবং আহত ব্যক্তি একই ইউনিয়নের পোড়াপাড়া গ্রামের মৃত সহবুলের ছেলে শরিফুল ইসলাম(৩৫)। স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, নিহত ও আহত ব্যক্তিদের ১০ জনের একটি দল রবিবার দিবাগত গভীর রাতে বাংলাদেশের জহরপুর এবং ওয়াহেপুর বিওপির মধ্য দিয়ে সীমান্ত পিলার ১৬/৪ এস এর পাশ দিয়ে ভারতে অবৈধভাবে প্রবেশের সময় ভারতের চাঁদনী চক ও নুরপুরের বিএসএফ ক্যাম্পের একটি যৌথ দল রাত আড়াইটার দিকে গুলি ছুঁড়লে শাামিম ও শরিফুল গুরুতর আহত হয়। এ সময় আহত শরিফুলসহ অন্যরা পালিয়ে আসতে সক্ষম হলেও শামিম ঘটনাস্থলেই মারা যায়। সূত্রটি আরও জানায়, শরিফুল ডান হাতে গুলিবিদ্ধ হলে অজ্ঞাত স্থানে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বিষয়টি নিশ্চিত হতে আহত শরিফুলের মোবাইল ফোনে ফোন করা হলেও তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। অন্যদিকে, নিহত শামিমের ফোনে ফোন করা হলে নিহতের পিতা বাহারুল তার ছেলের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তার ছেলের লাশ এখনও পাওয়া যায়নি। পরে সাংবাদিকের পরিচয় জানতে পেরে তার পিতা ফোন সংযোগ কেটে ফোন বন্ধ করে দেন। এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ চৌধুরী জোবায়ের হোসেন সীমান্তে হতাহতের বিষয়টি শুনেছেন বলে নিশ্চিত করেন। এব্যাপারে চাঁপাইনবাবগঞ্জস্থ ৫৩ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে: কর্নেল নাহিদ হোসেন জানান, স্থানীয়ভাবে সীমান্তে একজন নিহত ও আহতের সংবাদ শুনেছি। কিন্তু নিহতের পিতা এ ধরনের কোন অভিযোগ করেনি। তদন্ত করে দেখা হচ্ছে, সত্যতা নিশ্চিত হলে গণমাধ্যমকে তা জানানো হবে।