চৌমুহনী ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন নিয়ে শঙ্কা

প্রকাশিত : ডিসেম্বর ২৬, ২০২২ , ৬:৫৭ অপরাহ্ণ

ইয়াকুব নবী ইমন, নিজস্ব প্রতিনিধি, নোয়াখালী, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: বৃহত্তর নোয়াখালীর প্রধান বাণিজ্যিক শহর চৌমুহনী ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই শঙ্কার সৃষ্টি হচ্ছে। প্রার্থীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে মত পার্থক্য। ভিন্ন দল আর ভিন্ন মতের প্রার্থী একে অপরের বিরুদ্ধে কুৎসা রটাতে দেখা যাচ্ছে। কেউ কেউ একে অপরের ভোটার হওয়া, প্রার্থিতার বৈধতা নিয়েও প্রশ্ন তুলছেন। প্রার্থীদের এমন আচরণে ভোটারদের মধ্যে শঙ্কা দেখা দিয়েছে যে, আদৌ চৌমুহনী ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন যথা সময়ে হবে কিনা? এদিকে গতকাল রাতে ব্যবসায়ী সমিতির অফিসে ঘটেছে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। এনিয়ে আসন্ন ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচনে কার্যকরী সভাপতি প্রার্থী আমিরুল বাশার মান্নার করা একটি ফেসবুক পোষ্ট ভাইরাল হয়েছে। পরে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সমিতির বর্তমান সভাপতি ও আসন্ন নির্বাচনে সভাপতি পদপ্রার্থী হুমায়ুন কবির রাতের আধারে এসেছিলেন পুরানো তারিখ দেখিয়ে নতুন করে আজীবন সদস্য হতে । স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে একাধিক নির্বাচন কমিশনার ও সাধারণ ব্যবসায়ীরা গেলে অফিসের কেরানি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। এ ঘটনায় চৌমুহনীতে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। নির্বাচনে হুমায়ুন কবিরের প্রতিদ্ধন্ধি প্রার্থী ও তার সমর্থকরা এ ঘটনার সাথে জড়িত হুমায়ুন কবিরের সভাপতি প্রার্থিতা বাতিল ও সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানান। পরবর্তীতে শনিবার দিনভর নির্বাচন কমিশনের লোকজন একাধিকবার বৈঠক করলেও কোন সুরাহা হয়নি। একাধিক নির্বাচন কমিশনার এ প্রতিবেদককে জানান, আমরা বিষয়টি জানার পর সমাধানের চেষ্টা করছি। একাধিক বৈঠকও করা হয়েছে। দেখা যাক আমরা কতটুকু সমাধান করতে পারি। এ ব্যাপারে সমিতির বর্তমান সভাপতি ও আসন্ন নির্বাচনে সভাপতি পদপ্রার্থী হুমায়ুন কবির জানান, এটা আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। তারা চাচ্ছে আমি যেন নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াই। এ নিয়ে আমার কোন ইন্টারেস্ট নেই। তবে চৌমুহনীর একাধিক সচেতন নাগরিক জানান, ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কেউ যাতে কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনার জন্ম দিতে না পারে সে জন্য সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। এই শহর আমাদের। এটা শান্তিপ্রিয় শহর। সমিতির নির্বাচন যেন শান্তিপূর্ণ ভাবে হয় সে জন্য প্রশাসনসহ সকলের হস্তক্ষেপ চেয়েছে সচেতন ব্যবসায়ীমহল।