ভোলাহাটে আম পাড়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নারীসহ ৩ জন আহত

প্রকাশিত : জুন ১৬, ২০২২ , ৮:০৪ অপরাহ্ণ

ভোলাহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আহত  মোঃ হেলাল উদ্দিন।

মোঃ আশরাফুল ইসলাম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: ভোলাহাটে আম পাড়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে একই পরিবারের দু’নারীসহ ৩জন আহত হয়েছেন। আহতরা ভোলাহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন। একজনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। আহতরা হলেন, নতুনহাঁসপুকুর গ্রামের মৃত: আবেদ আলীর ছেলে মোঃ হেলাল উদ্দিন(৩৮), মৃত: আবেদ আলীর স্ত্রী মোসাঃ ফাতেমা(৬৫) ও মোঃ হেলাল উদ্দিনের স্ত্রী আন্জু(৩৫)। আহত মোঃ হেলালের ভাই মোঃ আব্দুল আওয়াল অভিযোগ করে বলেন, ১৫ জুন বুধবার সকাল ১০টার দিকে আমাদের বাড়ীর পাশে আমাদের আম গাছে প্রতিবেশী মোঃ নুরুল ইসলামের ছেলে মোঃ সাইরুল ইসলাম(৪০), মোঃ আজিজুর(৩৮), মোঃ সাদিকুল ইসলাম(৩৬) ও মোঃ নুরুল ইসলাম(৬৭) অবৈধ ভাবে এসে আম পাড়া শুরু করে। তাঁরা অবৈধ ভাবে আম পড়া শুরু করলে আমার মা, ভাই,ভাবী আম পাড়তে বাধা দিলে তাঁরা সংঘবদ্ধ হয়ে বাঁশের লাদনা লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারপিট শুরু করে। এ সময় তাঁদের মারপিটের আঘাতে আমার ভাই মোঃ হেলাল উদ্দিন মাথায় প্রচণ্ড আঘাত পায় এবং আমার মা ও ভাবীর শরীরের বিভিন্ন জায়গাতে লাঠি দিয়ে আঘাত করে আহত করেন। তাঁদের আহত অবস্থায় দ্রুত ভোলাহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। তিনি বলেন, আমার মা ও ভাবীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হলেও অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় আমার ভাই মোঃ হেলাল উদ্দিনের মাথায় প্রচণ্ড আঘাত পাওয়ায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজে প্রেরণ করা হয়েছে। বর্তমানে আমার ভাই রাজশাহীতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে জানান। তিনি বলেন, এ ঘটনায় মামলা হয়নি তবে আমার ভাইয়ের অবস্থা ভালো হলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানান। এ ব্যাপারে ভোলাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোঃ মাহবুবুর রহমান জানান, এ ঘটনায় থানায় কোন অভিযোগ হয়নি। অভিযোগ হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান।