শিশু সন্তানের অসুস্থতার কথা বলে ডেকে এনে সাবেক স্ত্রীকে গণধর্ষণ: গ্রেফতার ৩

প্রকাশিত : জুন ১৭, ২০২২ , ৬:৩১ অপরাহ্ণ

মোঃ আজিজুর রহমান ভূঁঞা বাবুল, ব্যুরো প্রধান, ময়মনসিংহ, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর উপজেলায় শিশু সন্তানের অসুস্থতার কথা বলে ডেকে এনে গণধর্ষণের অভিযোগে সাবেক স্বামী মাসুদসহ (৩০) তিনজনকে গ্রেফতার করেছে ফুলপুর থানা পুলিশ। পরে গ্রেফতারকৃতদের ময়মনসিংহ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলে পুলিশ জানায়। শুক্রবার (১৭ জুন) দুপুরের দিকে গ্রেফতারকৃতদের ময়মনসিংহ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এর আগে বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) বিকেলে আসামিদের বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৩ বছর পূর্বে ইসলামী শরীয়া মোতাবেক ভিকটিমকে বিয়ে করেন ময়মনসিংহের ফুলপুর পৌরসভার দিউ গ্রামের রজব আলীর ছেলে মাসুদ। বিয়ের পর তাদের একটি ছেলে সন্তান হলে তাকে রেখে ভিকটিমকে তালাক দেন তার স্বামী মাসুদ। অভিযোগে প্রকাশ, তালাকের পর ভিকটিম ঢাকায় থেকে ছেলের জন্য প্রতি মাসে ৫ হাজার করে টাকা পাঠাতেন। এরই মাঝে মাসুদ লোক মারফত ভিকটিমকে ছেলের অসুস্থতার সংবাদ জানিয়ে খবর দেন। এ খবর পেয়ে গত ১১ জুন আনুমানিক রাত পৌনে আটটার দিকে ভিকটিম ঢাকা থেকে মাসুদের বাড়িতে আসেন। পরে মাসুদ ভিকটিমকে ছেলে না দেখিয়ে ফুলপুর উপজেলার আমুয়াকান্দা বাজারের জনৈক রফিকের ভাড়াটিয়া বাসায় নিয়ে যান। সেখানে মাসুদসহ আরো অজ্ঞাতনামা ৩ জন মিলে ভিকটিমকে জোরপূর্বক পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে এ ঘটনায় ভিকটিম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ফুলপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় মাসুদসহ গ্রেফতারকৃত অন্যরা হলেন ফুলপুর উপজেলার কাড়াহা গ্রামের মিরাজ আলীর ছেলে জজ মিয়া (৩৭) ও জাগির কাজিয়াকান্দা গ্রামের রহিছ উদ্দিনের ছেলে আমিনুল ইসলাম (৩২)। ফুলপুর থানার (ওসি-তদন্ত) আব্দুল মোতালিব চৌধুরী এ বিষয়ে বলেন ‘আসামিদেরকে ময়মনসিংহের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।’