বেগমগঞ্জে পুলিশ পরিচয় দিয়ে অটোরিকশা চুরি

প্রকাশিত : জুলাই ১, ২০২২ , ৫:৩৮ অপরাহ্ণ

ইয়াকুব নবী ইমন, নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এবার পুলিশ পরিচয় দিয়ে চোরের দল অসহায় এতিম কোরবান আলীর অটোরিকশাটি চুরি করে নিয়েছে গেছে। একমাত্র উপার্জনের মাধ্যম অটোরিকশাটি হারিয়ে না খেয়ে দিন কাটাচ্ছে অসহায় কোরবান আলীর পরিবারের সদস্যরা। শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনায় অটোরিকশার মালিক কোরবান আলী বেগমগঞ্জ মডেল থানায় ও র‌্যাব নোয়াখালী ক্যাম্পে পৃথক অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ বা র‌্যাব এখনো অটোরিকশাটি উদ্ধার বা কাউকে সনাক্ত করতে পারেনি। রিক্সা চালক কোরবান আলী নোয়াখালী সদর উপজেলার আন্ডারচর ইউনিয়নের পূর্ব মাইজচরা গ্রামের আবদুস শহীদের বাড়ির মৃত আবদুস শহীদের ছেলে। কিছুদিন নিজের জমানো ৩০ হাজার টাকার সাথে ৮০ হাজার টাকা কিস্তি নিয়ে ১ লক্ষ ১০ হাজার টাকা দিয়ে অটোরিকশাটি কিনেন। এর পর থেকে তিনি চৌমুহনী শহরের অলিতে গলিতে রিক্সা চালিয়ে কোন মতে সংসার চালাচ্ছেন। তার উপর প্রতি সপ্তাহে ৩ হাজার টাকা করে কিস্তি পরিশোধ করতে হতো। এই অটোরিকশার উপার্জন দিয়ে কোরবান আলীর মা-বাবাহীন এতিম বোন এবং বোনের মেয়েদের নিয়ে কোন রকমে সংসার চালাতো। রিকশাটি হারিয়ে এখন এদিক ওদিক পাগলের মতো ছুটছে কোরবান আলী। আর

অটোরিকশার মালিক ও চালক কোরবান আলী।

পরিবারের সদস্যরা আছেন না খেয়ে। কারণ আয় না থাকলেও যে চুলোয় হাড়ি বসেনি তাদের। শুক্রবার বিকালে অসহায় অটোরিকশা চালক কোরবান আলী জানান, বৃহস্পতিবার বিকালে চৌমুহনী হোসেন মার্কেটের সামনে থেকে যাত্রী সেজে চোর চক্রের একজন তার রিক্সায় উঠে। ঘটনাস্থল আপন নিবাসের সামনে আসার পর তিনি দেখেন সিএনজি করে চোর চক্রের আরো একজন লোক এসে যুক্ত হয়। পরবর্তীতে পুলিশ পরিচয় দিয়ে তার কাছ থেকে নানান তথ্য নিতে থাকে। এ সময় চোর চক্রের সদস্য নিজেকে থানার সেকেন্ড অফিসার পরিচয় দেন। কোরবান আলী জানান, একটু পর থানায় যাওয়ার কথা বলে চক্রের একজন কিছুদূর চলে গেলে অন্যজন তাকে ডাকার জন্য আমাকে পাঠায়। আমি লোকটিকে ডাকতে গেলে এই ফাঁকে চোর আমার রিক্সাটি নিয়ে পালিয়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও আর রিক্সাটি পাইনি। এখন নিজেদের খাওয়া পরা আর সপ্তাহ শেষে কিস্তির টাকা দেয়ার চিন্তার দিশেহারা অসহায় কোরবান আলী। দ্রুত চুরি যাওয়া অটোরিকশাটি উদ্ধার ও চোরদের সনাক্ত করে গ্রেফতার-পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করেছে অসহায় কোরবান আলী ও তার পরিবারের সদস্যরা। এ ব্যাপারে বেগমগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মীর জাহিদুল হক রনি জানান, অভিযোগ আমরা পেয়েছি। তদন্তও শুরু করেছি। চোরদের গ্রেফতার ও অটোরিকশাটি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।