আইন অমান্য করে লাংলী নদীতে পুনরায় বালু উত্তোলন

প্রকাশিত : জুলাই ২, ২০২২ , ৭:০৫ অপরাহ্ণ

মশাহিদ আহমদ, মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন:শ্রীমঙ্গলে লাংলী নদীতে (বিলাস নদী) অবৈধ ও অ-পরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলন করছে একটি অসাধু চক্র। মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান এর নির্দেশনায় ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার, শ্রীমঙ্গল এর তত্ত্বাবধানে বালু-মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ অনুযায়ী নগদ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান ও জব্দকৃত মালামাল ঘটনাস্থলে প্রকাশ্য নিলামের মাধ্যমে আদায় করা হলেও পুনরায় শনিবার (২ জুলাই) অলিপুর (মতিগঞ্জ) গ্রামের ইছল মিয়া ওরফে মায়া মিয়ার পুত্র হায়দর মিয়া,অলিপুর নিবাসী অমর আলীর পুত্র হান্নান মিয়া-গংরা। প্রশাসনের পক্ষ থেকে একাধিকবার সতর্কবার্তা দেওয়ার পরও বন্ধ হচ্ছে না। জানা গেছে- রাজঘাট দিয়ে প্রবাহিত লাংলী নদী হেতিমগঞ্জ নামক স্থানে বিলাস নদীতে গিয়ে হাইল হাওরে মিলিত হয়েছে। বর্তমানে এ নদীর রূপরেখা খালে পরিণত হয়েছে। অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনের ফলে জনসাধারণ এর জন্য চলাচলের জন্য রাস্তা ও বাড়ী ঘর হুমকির মুখে রয়েছে। বর্ষায় নদীগুলোর দু’তীর ভেঙে প্লাবিত হয়ে পানিতে তলিয়ে যাচ্ছে ঘরবাড়ি ও কৃষকের সোনালী ফসল। স্থানীয়রা জানান- অবৈধ ভাবে প্রভাবশালী মহলটি ক্ষমতার দাপট ও প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করছে। এসব অনিয়ম-দুর্নীতির কারণে সরকার বিপুল-পরিমাণ রাজস্ব হারাচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরী।