যৌতুকের জন্য স্বামীর অত্যাচারে গৃহবধূর মৃত্যু

প্রকাশিত : জুলাই ১৭, ২০২২ , ৭:৫০ অপরাহ্ণ

ইয়াকুব নবী ইমন, নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার জাহাজমারা ইউনিয়নের বিরবিরি গ্রামের ৬নং ওয়াড়ে স্বামীর অত্যাচারে গৃহবধূর মৃত্যু অভিযোগ উঠেছে। তবে বিজলীর পরিবার বলছে, যৌতুকের টাকা না দিতে পারায় তারা আমাদের মেয়েকে পিটিয়ে মেরে ফেলেছে। সূত্রে জানা গেছে, দুই বছর আগে জাহাজমারা ইউনিয়নের পূর্ব বিরবিরি গ্রামের ৬নং ওয়াড়ের সোহরাবের ছেলে মো.মামুনের (২২) সঙ্গে উত্তর বিরবিরি গ্রামের আবুল কাশেমের মেয়ে বিজলী আক্তারের(২০) বিয়ে হয়। বিয়ের কয়েকদিন পর থেকে মামুন তার স্ত্রী বিজলি আক্তারকে যৌতুকের জন্য চাপ দেয়। বিজলী বিষয়টি তার পরিবারকে জানায়, তার পরিবার যৌতুক দিতে অপারগতা প্রকাশ করায়। তার উপর অত্যাচার বেড়ে যায়। পারিবারিক কলহের জের ধরে ঘরে কেউ না থাকায় শনিবার বেলা ১২টার সময় রান্নাঘরে আড়ার সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে বিজলি আক্তার আত্মহত্যা করছে বলে স্থানীয় ইউপি মেম্বার মিরাজ উদ্দিন জানান। তবে বিজলীর পরিবার বলছে যৌতুকের টাকা না দিতে পারায় তারা আমাদের মেয়েকে পিটিয়ে মেরে ফেলেছে। হাতিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমির হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, প্রাথমিক ভাবে মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে । এ ঘটনায় কেউ কোন অভিযোগ করেনি। আমরা ঘটনাস্থলে যাচ্ছি বিস্তারিত জেনে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।