বেগমগঞ্জে বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা: ভাংচুর ও লুটপাট

প্রকাশিত : জুলাই ২৮, ২০২২ , ৮:৪৫ অপরাহ্ণ

ইয়াকুব নবী ইমন, নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জেরে বসত বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটে ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার চৌমুহনী পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড হাজীপুর গাইন বাড়িতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দিলেও পুলিশ এখনো কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মঙ্গলবার রাতে স্থানীয় বাচ্ছুর পুত্র বাবুর নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী গাইন বাড়িতে হামলা চালায়। তারা ওই বাড়ির একাধিক বসত ঘরে ব্যাপক ভাংচুর, নগদ টাকা, মোবাইল-সেটসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়। বাঁধা দেওয়ায় সন্ত্রাসীরা ওই বাড়ির রায়হানসহ অন্তত ৫ জনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে। এ ঘটনায় গাইন বাড়ির আবদুল মতালেবের স্ত্রী আলেয়া বেগম বাদী হয়ে বাবুসহ ১৩ জনের নামে উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত আরো ১৫-২০ জনের নামে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় বুধবার রাতে লিখিত অভিযোগ মামলা দায়ের করেছেন। কিন্তু পুলিশ এখনো কোন আসামীকে গ্রেফতার না করায় সন্ত্রাসীরা উল্টো ওই বাড়ির লোকজনকে হুমকি দিচ্ছে। এতে আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে বাড়ির সাধারণ মানুষ। মামলার বাদী আলেয়া বেগম জানান, দীর্ঘদিন থেকে সন্ত্রাসীরা ওই এলাকার মানুষকে জিম্মি করে নানা ভাবে নির্যাতন করে আসছে। আমাদের বাড়ির লোকজন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বাঁধা দেওয়ায় ও পূর্ব শত্রুতার জেরে বাবুর নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা এই হামলা চালিয়েছে। আমরা অভিযোগ দিলেও পুলিশ কোন আসামী গ্রেফতার করেনি। ফলে অভিযুক্তরা বীর-দর্পে ঘুরে বেড়াচ্ছে এলাকায়। আমরা নিরাপত্তা-হীনতায় আছি। এ ঘটনায় বক্তব্য নিতে অভিযুক্ত বাবুসহ কাউকে এলাকায় পাওয়া যায়নি। বৃহস্পতিবার দুপুরে বেগমগঞ্জ মডেল থানার ওসি মীর জাহিদুল হক রনি বলেন, গাইন বাড়িতে হামলার ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।