চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে ঝিনাইদহে গাছে বেধে নির্যাতনের শিকার সুলতান

প্রকাশিত : আগস্ট ৪, ২০২২ , ৯:২৪ অপরাহ্ণ

হেলালী ফেরদৌসি, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: গাছে বেধে নির্যাতনের শিকার আহত সুলতান অবশেষে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৪ আগস্ট বুধবার ভোরে মারা গেছে। নিহত সুলতান ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার পুরন্দপুর গ্রামের মৃত আসমত আলীর ছেলে। পারিবারিক ও থানা সূত্রে জানা গেছে, মহেশপুর উপজেলার খাঁ পুরন্দরপুর গ্রামের মৃত আসমত আলীর ছেলে সুলতানের সাথে একই গ্রামের মৃত গোলাম মন্ডলের ছেলে রমজান আলীর বন্ধুত্ব ছিল। গত ৬ জুলাই দুপুরে রমজান আলী বোনের বাড়ি যাওয়ার কথা বলে সুলতানের বাইসাইকেলটি নিয়ে যায়। সন্ধ্যার পর সুলতান বাইসাইকেলটি নিতে রমজানের বাড়িতে আসে। এ সময় রমজান বাড়ীতে না থাকায় স্থানীয় লোকজন রমজানের স্ত্রীর সাথে সুলতানের অবৈধ সম্পর্ক আছে এ অপবাদে সুলতানকে গাছে বেঁধে মারপিট শুরু করে। পরে আত্মীয় স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় নিহত সুলতানের ভাই ফরিদ মিয়া বাদী হয়ে মহেশপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মহেশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সেলিম মিয়া জানান, গাছে বেধে নির্যাতনের শিকার আহত সুলতান অবশেষে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে, থানায়ও মামলা হয়েছে, আসামী ধরার চেষ্টা চলছে।