কমলগঞ্জে বৃদ্ধকে হত্যা-চেষ্টার মামলায় ইউপি সদস্য কারাগারে

প্রকাশিত : আগস্ট ৬, ২০২২ , ৫:৩০ অপরাহ্ণ

মশাহিদ আহমদ, মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: কমলগঞ্জে শালিস ব্যক্তিত্ব বৃদ্ধ আবদুল খালিক (৬৮)কে হত্যা-চেষ্টার মামলায় ১নং রহিমপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার বুলবুল আহমেদ ওয়াতিরকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার মৌলভীবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে বিজ্ঞ বিচারক জমিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। বাদীপক্ষের প্রধান কৌঁসুলি অ্যাডভোকেট সজল চন্দ্র দেব জানান- মামলার প্রধান আসামি বুলবুল আহমদ ওয়াতির হাইকোর্ট থেকে ৪ সপ্তাহের আগাম জামিন নিয়েছিলেন। গত ৩ আগস্ট জামিনের মেয়াদ শেষ হয়েছে। বৃহস্পতিবার আদালতে আত্মসমর্পণ করে কৌঁসুলির মাধ্যমে জামিনের প্রার্থনা করলে বিজ্ঞ বিচারক জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে আসামিকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। জানা যায়- গত ২৭ জুন দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রামচন্দ্রপুর কমিউনিটি ক্লিনিকে চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে ফেরার পথে উজির মিয়ার দোকানের সামনে আসলে পূর্ব-পরিকল্পিতভাবে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে অতর্কিত ভাবে আব্দুল খালিকের ওপর হামলা চালায়। এ ঘটনায় আব্দুল খালিক বাদী হয়ে ইউপি মেম্বার বুলবুল আহমদ ওয়াতির ও মৃত হাজী আলাউদ্দিনের ছেলে নজির মিয়া গংসহ অজ্ঞাত ৩-৪ জনের নামে মামলা করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে কমলগঞ্জ থানার ওসিকে এজাহার হিসেবে গণ্য করতে নির্দেশ দেন। কমলগঞ্জ থানার জিআর মামলা নং-১০৬। উল্লেখ্য- বিগত ১৯৯৮ ইং সনে মারধোর ও চুরির ঘটনায় তিনি হাজতবাস করেছেন। ইউপি সদস্য হওয়ার পর থেকে আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেন।