হ্যান্ডকাফ নিয়ে পালানোর ১৭ দিন পর মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

প্রকাশিত : অক্টোবর ১৬, ২০২২ , ৯:০৩ অপরাহ্ণ

ইয়াকুব নবী ইমন, নিজস্ব প্রতিনিধি, নোয়াখালী, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে পুলিশকে কামড় দিয়ে হ্যান্ডকাফসহ পালানোর ১৭দিন পর মাদক ব্যবসায়ী ইসমাইল হোসেন ওরফে বয়াতি কে (৪৫) গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। শনিবার (১৫ অক্টোবর) সন্ধ্যার দিকে জেলার সোনাইমুড়ী উপজেলা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত ইসমাইল হোসেন বয়াতি (৪৫) উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের জামাইয়ের টেক এলাকার নোয়াব আলী স্বর্ণকার বাড়ির আলী আজমের ছেলে। রাত ১১টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন নোয়াখালীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো.শহীদুল ইসলাম। তিনি বলেন,গত ২৮ সেপ্টেম্বর বিকেলে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার ৮নম্বর ওয়ার্ডের জামাইয়েরটেক এলাকা থেকে মাদক ব্যবসায়ী বয়াতিকে হ্যান্ডকাফসহ ছিনিয়ে নেয় তার সহযোগীরা। এ ঘটনায় একই দিন সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে বয়াতির বেশ কয়েকজন স্বজনকে আটক করা হয়। ওই ঘটনার ১৭দিন পর একাধিক মাদক মামলা ও পুলিশ অ্যাসল্ট মামলার আসামি মাদক সম্রাট বয়াতিকে তথ্য প্রযুক্তির সহযোগিতায় গ্রেফতার করা হয়। উল্লেখ্য, মাদক ব্যবসায়ী বয়াতি পেশায় একজন ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চালক ছিলেন। সে দীর্ঘ তিন বছর ধরে রিকশা চালানো ছেড়ে দিয়ে বসুরহাট পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডে মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছিল। গত ২৮ সেপ্টেম্বর বিকেলে জামাইয়ের টেক এলাকায় মাদক বিক্রি হচ্ছে এমন গোপন খবর পেয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এএসআই) রবিউলের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান চালায়। অভিযানে গাঁজাসহ তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে বয়াতীকে ছাড়িয়ে নিতে তার পরিবারের কয়েকজন নারী ও পুরুষ এসে উপস্থিত হন। এক পর্যায়ে আসামিকে নিয়ে পুলিশ সদস্যরা থানায় আসার পথে ঘটনাস্থলে একজন নারী পুলিশকে হাতে কামড় দিয়ে আসামিকে ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়।