মুক্তাগাছায় পুত্রবধূকে নির্যাতনে বাধা দেয়ার সময় ছেলের দায়ের কোপে বাবা নিহত

প্রকাশিত : অক্টোবর ১৯, ২০২২ , ৮:৫১ অপরাহ্ণ

ময়মনসিংহ ব্যুরো, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলায় পুত্রবধূকে নির্যাতনে বাধা দেয়ার সময় ছেলের দায়ের কোপে বাবা ইমান আলী ফকির (৭৫) নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ছেলে জহিরুল ইসলাম ফকিরকে (৪৫) আটক করেছে পুলিশ। বুধবার (১৯ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মুক্তাগাছা উপজেলার বড়গ্রাম ইউনিয়নের মির্জাকান্দা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ইমান আলী ফকির মুক্তাগাছা উপজেলার বড়গ্রাম ইউনিয়নের মির্জাকান্দা গ্রামের বাসিন্দা। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার সকালে জহিরুল ইসলাম তার স্ত্রীকে নির্যাতন করছেন দেখে বাবা ইমান আলী ফকির ছেলেকে বাধা দেন। এতে জহিরুল ক্ষিপ্ত হয়ে হাতে থাকা দা দিয়ে বাবার ঘাড়ে কোপ দেন। এসময় ঘটনাস্থলেই ইমান আলী ফকির মারা যান। পরে স্থানীয়দের খবরে ছেলে জহিরুলকে আটক করে পুলিশ। মুক্তাগাছা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নীল কমল এ ব্যাপারে বলেন, জহিরুলের মানসিক সমস্যা রয়েছে। তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে ছেলের দায়ের কোপে বাবা ঈমান আলী মারা গেছেন। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘাতক ছেলেকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান তিনি।