ঝিনাইদহে এক রাতে দুই বাড়িতে ডাকাতি

প্রকাশিত : অক্টোবর ২৮, ২০২২ , ৪:৪৭ অপরাহ্ণ

হেলালী ফেরদৌসী, নিজস্ব প্রতিনিধি, ঝিনাইদহ, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বিষয়খালী গ্রামের মাঠপাড়া এলাকায় একই রাতে দুই ভ্যান-চালকের বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় সংঘবদ্ধ ডাকাতদলের সদস্যরা মোবাইল ফোন, শাড়ি, লুঙ্গি, নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুট করে পালিয়ে যায়। বৃহস্পতিবার দিনগত রাত আড়াইটার সময় মাঠপাড়ার বাসিন্দা ভ্যান-চালক জিয়ারত আলী শেখের বাড়িতে মুখ বাঁধা অবস্থায় ১০/১৫ জনের ডাকাত দল প্রবেশ করে। সেসময় তারা অস্ত্রের মুখে বাড়ির সকল সদস্যের হাত পা বেঁধে গরু বিক্রি করার টাকা নগদ ৬০ হাজার, ৩ জোড়া স্বর্ণের দুল, ২টি আংটি, ৪টি মোবাইল ফোন, ২০টি শাড়ি, ৫টি লুঙ্গিসহ বেশ কিছু মালামাল নিয়ে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। অপরদিকে একই রাতে পার্শ্ববর্তী ভ্যান চালক হাসেম আলীর বাড়িতেও হানা দেয় সংঘবদ্ধ ডাকাতদল। সেসময় তারা হাসেমের ছেলে নাজমুলের এনজিও থেকে উত্তোলন করা নগদ ৮০ হাজার টাকা, ৬টি মোবাইল ফোন, ১টি স্বর্ণের চেইন, ১জোড়া বালা, ১ জোড়া দুল, ১ জোড়া নুপুরসহ বেশ কিছু মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়। জিয়ারত ও হাসেম জানান, মুখ বাঁধা থাকায় ডাকাতদের কাউকে তারা চিনতে পারেননি। ডাকাতদল চলে যাওয়ার পর তারা হাত-পায়ের বন্ধন খুলে ডাকাত ডাকাত বলে চিৎকার করলে এলাকাবাসী ছুটে আসে। কিন্তু ততক্ষণে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। এলাকাবাসীও তাদের দেখতে পায়নি। তখনও বাড়ির কিছু সদস্যের হাত-পা বাঁধা ছিল। এলাকাবাসীরা তাদের মুক্ত করে। এ ঘটনায় সদর থানায় একটি ডাকাতি মামলার অভিযোগ করবেন বলে জানান জিয়ারত ও হাসেম।
ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানার কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি ডাকাতির ঘটনা জানি না। আপনাদের মাধ্যমে মাত্র শুনলাম। তবে থানায় অভিযোগ করলে ডাকাতদের গ্রেফতার করতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।