যৌতুকের দাবীতে গৃহবধূকে নির্যাতনের অভিযোগ

প্রকাশিত : ডিসেম্বর ১৯, ২০২২ , ৫:৪৩ অপরাহ্ণ

ইয়াকুব নবী ইমন, নিজস্ব প্রতিনিধি, নোয়াখালী, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: যৌতুকের দাবীতে তুহি সাহা নামের এক গৃহবধূকে দফায় দফায় নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে স্বামী ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় গৃহবধূ আদালতে মামলা করেছেন। নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার নরোত্তমপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড এলাকার তরুণী সাহার বাড়ির বিজেশ সাহার মেয়ে তুহি সাহার সাথে চট্টগ্রামের হালিশহর নয়া বাজার এলাকার মৃত মানু লাল সাহার পুত্র রাজু কুমার সাহার পারিবারিক বিয়ে হয়। বিয়ের সময় উপহার হিসেবে তুহি সাহার স্বামীকে ২৫ ভরি স্বর্ণালংকারসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র দেয়া হয়। এর পরও বিয়ের মাত্র তিন মাসের মাথায় আরো টাকার জন্য স্বামী রাজু সাহা ও তার পরিবারের সদস্যরা তুহি সাহাকে নির্যাতন করতে থাকে। তুহি সাহা পিতার পরিবারের কথা চিন্তা করে নির্যাতন সহ্য করে স্বামীর বাড়িতেই অবস্থান করছিলো। এর পর্যায়ে গত ১৪-১০-২০২২ইং তারিখে যৌতুকের জন্য স্বামী রাজু সাহা ও তার পরিবারের সদস্যরা তুহি সাহাকে ব্যাপক মারধর করে। এক পর্যায়ে খবর পেয়ে তুহি সাহার পিতা মেয়েকে নিজ বাড়িতে নিয়ে আসে। এরপর সামাজিক ভাবে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করা হলেও তা ব্যর্থ হয়। স্ত্রীকে নিতে এসে স্বামী রাজু সাহা শ্বশুর বাড়িতে এসে আবারও তুহির কাছে টাকা দাবী করে। তুহি টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে মারধর করে। এ ঘটনায় তুহি সাহা বাদী হয়ে স্বামী, দেবর অপু কুমার সাহা ও শাশুড়ি পটু রানী সাহার বিরুদ্ধে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। উক্ত মামলায় তুহি সাহার স্বামী রাজু সাহা ও দেবর অপু সাহাকে চট্টগ্রাম থেকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠান। তুহি সাহার শাশুড়ি জামিনে রয়েছেন। অপরদিকে কিছুদিন জেল খেটে দেবর অপু সাহা জামিনে বেরিয়ে এসে মামলা তুলে নেয়ার জন্য তুহি সাহাকে প্রাণ নাশের হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন মামলার বাদী তুহি সাহা।
তুহি সাহা জানান, তাদের হুমকিতে আমরা নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছি। যৌতুকের জন্য আর কাউকে যেন আমার মতো নির্যাতনের শিকার হতে না হয়। আমরা ন্যায় বিচার চাই।