প্রধান শিক্ষকসহ সহকারী শিক্ষকদের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

প্রকাশিত : জানুয়ারি ২৪, ২০২৩ , ৬:৪৩ অপরাহ্ণ

আশরাফুল ইসলাম, নিজস্ব প্রতিনিধি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: শিবগঞ্জ উপজেলার পুকুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহান আরা বেগম ও সাতজন সহকারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে প্রধান শিক্ষক ও সাতজন সহকারী শিক্ষককে সোকজ করেছে উপজেলা শিক্ষা অফিস। গত ১৫ জানুয়ারি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা পরিমল কুমার ঘোষ স্বাক্ষরিত একপত্রে বলা হয়, গত ১৫ জানুয়ারি বেলা ১টা ৩০ মিনিটের দিকে পুখুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন নেই এবং বিদ্যালয়ের সকল কক্ষ তালাবদ্ধ অবস্থায় দেখতে পেয়ে এলাকাবাসী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার নিকট মৌখিক অভিযোগ দেন। তাদের আচরণ সরকারি চাকরি বিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন বলে উল্লেখ করা হয়। পত্রে আরও বলা হয়, প্রধান শিক্ষক ও সাতজন সহকারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হবে না ও একদিনের বেতন কর্তন করা হবে না তার সন্তোষজনক লিখিত জবাব তিনদিনের কার্যদিবসের মধ্যে ভিন্ন-ভিন্ন ভাবে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার নিকট দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়। এলাকাবাসী জানায়, প্রায় সময় শিক্ষকরা বিদ্যালয় দেরিতে আসেন। ঠিকমত বিদ্যালয়ে ক্লাস না হওয়ায় অতিষ্ঠ এলাকাবাসী। ঘটনাটি তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন তারা। এ বিষয়ে সহকারী শিক্ষক নাজমা বেগমসহ সহকারী শিক্ষকরা জানান, প্রধান শিক্ষকের নির্দেশে ওই বিদ্যালয় বন্ধ করা হয়েছে। একই সঙ্গে সোকজ লিখিত জবাব দেয়া হয়েছে। তবে প্রধান শিক্ষক জাহান আরা বেগম বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, ওইদিন আমি উপজেলা শিক্ষা অফিসে ছিলাম। সেখান থেকে এসে দেখি বিদ্যালয় বন্ধ। সোকজের জবাব দেয়া হয়েছে। সহকারী শিক্ষকরা যোগসাজশে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা পরিমল কুমার ঘোষ বলেন, সোকজের লিখিত জবাব এখনো হাতে পাইনি। জবাব সন্তোষজনক না হলে বিভাগীয় ব্যবস্থাসহ একদিনের বেতন কর্তনের সুপারিশ করা হবে।