রবীন্দ্রনাথ মানবতার সেবায় আত্মনিয়োগে অনুপ্রাণিত করেছেন:খাদ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত : মে ৮, ২০২২ , ৬:৪৫ অপরাহ্ণ

নওগাঁ (পতিসর),ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন:বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের অসাম্প্রদায়িক চেতনা প্রতিষ্ঠিত করে সকল বিভেদ ভুলে সৌহার্দ্যপূর্ণ সাম্যের বাংলাদেশ গড়ার আহ্বান জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। রোববার রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে কবিগুরুর স্মৃতি বিজড়িত নওগাঁর আত্রাই উপজেলার পতিসর কাচারি বাড়ি প্রাঙ্গণে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য এ আহ্বান জানান মন্ত্রী। খাদ্যমন্ত্রী বলেন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ছিলেন মানবতার কবি। নওগাঁ জেলার আত্রাই উপজেলার এই কালিগ্রাম পরগনা ছিল কবির একান্ত নিজস্ব জমিদারি পরগনা। এই পরগনার জমিদারি কার্যক্রম পরিচালনার পাশাপাশি এই অঞ্চলের প্রাকৃতিক দৃশ্যাবলীকে উপজীব্য করে অসংখ্য সাহিত্য রচনা করেছেন তিনি। এই সাহিত্য সম্ভারে নওগাঁর প্রকৃতি, জনজীবন, কৃষি ও কৃষকদের জীবন-জীবিকা স্থান পেয়েছে।মন্ত্রী বলেন, রবীন্দ্রনাথ প্রজা-হিতৈষী জমিদার ছিলেন। তিনি পতিসরে প্রজাদের আর্থসামাজিক উন্নয়নে সমবায় ব্যবস্থা চালু করেন। তিনি তার নোবেল পুরস্কারপ্রাপ্ত ১ লাখ ৮ হাজার টাকা দিয়ে পতিসরে কৃষি ব্যাংক প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন। সমবায়ের চেতনা ছড়িয়ে দিয়েছিলেন। মানবতার সেবায় আত্মনিয়োগে অনুপ্রাণিত করেছেন তিনি। মন্ত্রী আরো বলেন, পতিসর কাচারি বাড়িতে রবীন্দ্রনাথ তাঁর জমিদারি চালাতে এসে মানবসেবার কাজ করেছেন এবং স্বাধীনতার চেতনাও তিনি জাগিয়েছেন। যার কারণে বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে রবীন্দ্রনাথের স্বদেশপ্রেমের যোগসূত্র রয়েছে। তার রচিত ‘আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালবাসি’ বাঙালিরা জাতীয় সংগীত হিসাবে গ্রহণ করেছে।সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় নওগাঁ জেলা প্রশাসন আয়োজিত আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক খালিদ মেহেদী হাসান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য ছলিম উদ্দিন তরফদার ও আনোয়ার হোসেন, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মনিরুল ইসলাম এবং নওগাঁর পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান মিয়া। এর আগে মন্ত্রী ফেস্টুন উড়িয়ে দিনব্যাপী নানা উৎসব উদ্বোধন করেন। এছাড়া কাচারি বাড়ি চত্বরে রাজশাহী চারুকলা বিভাগের শিক্ষার্থী ও নওগাঁ শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীদের অংশগ্রহণে ‘রং তুলিতে রবীন্দ্রনাথ’ চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন মন্ত্রী।