বৈশ্বিক জ্বালানি তেলের মূল্য কমার সাথে সাথে বাংলাদেশে সমন্বয় করা হবে

প্রকাশিত : আগস্ট ১৪, ২০২২ , ৯:১৯ অপরাহ্ণ

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, বৈশ্বিক জ্বালানি তেলের মূল্য কমার সাথে সাথে বাংলাদেশের জ্বালানি তেলের মূল্য সমন্বয় করা হবে। জ্বালানির মূল্যের উর্ধ্বগতি বৈশ্বিক। বৈশ্বিক এই পরিস্থিতি বাংলাদেশ সফলভাবেই মোকাবিলা করছে। সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমরা আরো ভালো করবো। প্রতিমন্ত্রী রবিবার বিদ্যুৎ ভবনে এফইআরবি আয়োজিত জ্বালানি খাতে বঙ্গবন্ধুর অবদান স্মরণ করতে ‘Energy Security in Bangladesh: Volatile International Market’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যকালে এসব কথা বলেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর জ্বালানি নীতি আমাদের জ্বালানি নিরাপত্তার মূলভিত্তি। নতুন গ্যাসক্ষেত্র আবিষ্কারের লক্ষ্যে টু-ডি এবং থ্রি-ডি সাইসমিক জরিপ কাজ চলমান আছে। ২০০৯-এ শেখ হাসিনার সরকার দায়িত্ব নেবার সময় গ্যাস উত্তোলনের জন্য আমাদের ১টিও সচল রিগ ছিল না, সেখানে এখন ৪টি নতুন রিগ যুক্ত হয়েছে। সাথে পুরানো ১টি রিগ পুনর্বাসন করা হয়েছে। গত জুনে আমরা বিজয়-১২ রিগের মাধ্যমে শ্রীকাইল নর্থ ১-এ কূপ খনন শুরু করেছি এবং গত মে মাসে বাপেক্স সফল ওয়ার্কওভারের মাধ্যমে কৈলাশটিলা-৭নং কূপ থেকে দৈনিক ১৯ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ শুরু করেছে এবং এই প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। ২০০৯ সালের শুরুতে কয়লা উত্তোলন হতো ৬ দশমিক ৯৬ লাখ মেট্রিক টন, ২০২২ সালে সেটা দাঁড়িয়েছে প্রায় ১৩০ দশমিক ২৮ লাখ মেট্রিক টন। শূন্য দশমিক ৬৯ লাখ মেট্রিক টন গ্রানাইট পাথরের জায়গায় এখন উত্তোলন করা হচ্ছে ৭৮ দশমিক ৭০ লাখ মেট্রিক টন। মাতারবাড়ীতে নির্মাণ করা হবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ল্যান্ড বেইজড এলএনজি টার্মিনাল এবং সমগ্র জ্বালানি খাতকে ডিজিটাইজেশনের লক্ষ্যে বাস্তবায়ন করা হচ্ছে ERP। ভোলার গ্যাস মূল ভূখন্ডে আনার কার্যক্রম পরিকল্পনাধীন রয়েছে। অর্থনীতির আকার বড় হচ্ছে। গ্যাস, বিদ্যুতের চাহিদা বাড়ছে, চাহিদা ও জোগানের গ্যাপ বাড়লেও তা পূরণ করার উদ্যোগ অব্যাহত রয়েছে। যে সাবধানতা নেয়া হয়েছে তা সাময়িক। বিশ্ব পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। একটু ধৈর্য্য ধরেন, জ্বালানি তেলের মূল্য কমলে বাংলাদেশেও তেলের মূল্য সমন্বয় করা হবে। আগামী মাসের শেষের দিকে দেশে বিদ্যুতের সমস্যাও সমাধান হবে। এ সময় তিনি বৈশ্বিক এই পরিস্থিতি সকলকে একত্রে থেকে সমস্যা সমাধান করার আহ্বান জানান। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এনার্জি এন্ড পাওয়ার ম্যাগাজিনের সম্পাদক মোল্লা আমজাদ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন এফইআরবি’র নির্বাহী পরিচালক রিসান নসরুল্লাহ। এফইআরবি’র চেয়ারম্যান মোঃ শামীম জাহাঙ্গীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব মোঃ মাহবুব হোসেন, পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান, জ্বালানি বিশেষজ্ঞ ভূতত্ববিদ অধ্যাপক বদরুল ইমাম, জ্বালানি বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক মোঃ শামসুল আলম ও বিজ-এর অর্থনীতিবিদ ড. মাহফুজ কবির বক্তব্য রাখেন।