পদ্মা বহুমুখী সেতুতে রেললাইন স্থাপন কাজের উদ্বোধন করলেন রেলপথ মন্ত্রী

প্রকাশিত : আগস্ট ২১, ২০২২ , ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ

শরীয়তপুর, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: পদ্মা সেতুতে দীর্ঘ প্রতীক্ষিত রেললাইন স্থাপন কাজের উদ্বোধন করলেন রেলপথ মন্ত্রী মোঃ নূরুল ইসলাম সুজন। মন্ত্রী শনিবার পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্তে পদ্মা সেতুর রেললাইন স্থাপন কাজের উদ্বোধন করেন । এ সময় জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই আলম চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। রেললাইন স্থাপন কাজের উদ্বোধন শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের রেলপথ মন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতু চালু হলেও এতদিন মূল সেতুতে রেললাইন বসানোর কাজের অনুমতি ছিল না । সেতু কর্তৃপক্ষ আমাদের সে অনুমোদন দেওয়াতে আজ সেতুতে রেললাইন বসানোর কাজের উদ্বোধন করা হলো। আশা করা যাচ্ছে ডিসেম্বরের মধ্যেই মূল সেতুতে রেললাইন বসানোর কাজ শেষ হবে। মন্ত্রী আরো বলেন, পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্প ঢাকা থেকে যশোর পর্যন্ত ১৬৯ কিলোমিটার। কাজের সুবিধার জন্য এটিকে ৩ ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে । ঢাকা থেকে মাওয়া , মাওয়া থেকে ভাঙ্গা এবং ভাঙ্গা থেকে যশোর পর্যন্ত। তিনি জানান, আমাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী আগামী বছর জুনের মধ্যে ঢাকা থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত রেল সংযোগ চালু করা সম্ভব হবে। ভাঙ্গা থেকে পুরনো লাইনের মাধ্যমে মানুষ কুষ্টিয়া হয়ে খুলনা পর্যন্ত যোগাযোগ করতে সক্ষম হবে। যদিও পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের মেয়াদ ২০২৪ সালের জুন পর্যন্ত ধরা আছে। মন্ত্রী এরপর বিভিন্ন অংশের কাজের অগ্রগতি তুলে ধরে বলেন, ঢাকা-মাওয়া অংশের কাজের অগ্রগতি ৬৪ শতাংশ। মাওয়া -ভাঙ্গা অংশের অগ্রগতি ৮২ শতাংশ এবং ভাঙ্গা – যশোর সেকশনের অগ্রগতি ৫৩ শতাংশ এবং সার্বিক অগ্রগতি ৬২ শতাংশ। এ সেতু দিয়ে কতগুলো ট্রেন চলাচল করবে এমন প্রশ্নের জবাবে রেলপথ মন্ত্রী বলেন, এ প্রকল্পের মাধ্যমে ১০০ টি কোচ আসবে। আর এসব কোচ দ্বারা পাঁচটি ট্রেন চালানো সম্ভব হবে। পরিদর্শনের সময় রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোঃ হুমায়ুন কবীর, বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক ধীরেন্দ্রনাথ মজুমদার, অতিরিক্ত মহাপরিচালক মোঃ কামরুল আহসান, প্রকল্প পরিচালক মোঃ আফজাল হোসেন, কনস্ট্রাকশন সুপারভিশন সার্ভিস সেনাবাহিনীর কর্মকর্তাসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।