শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেন নিয়মের ব্যত্যয় না ঘটে : শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত : আগস্ট ২৭, ২০২২ , ৮:১৬ অপরাহ্ণ

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, সংগৃহীত চিত্র।

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোনো রকম নিয়মের ব্যত্যয় না ঘটাতে সরকারি, বেসরকারি ও সংস্থা পরিচালিত সব প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি শনিবার রাজধানীর মনিপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন। মন্ত্রী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘আমার শুধু এইটুকু অনুরোধ ও আহ্বান থাকবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারি হোক, বেসরকারি কিংবা সংস্থা পরিচালিত হোক সেই প্রতিষ্ঠানকে আইন-কানুনের মধ্যে পরিচালিত হতে হবে। প্রতিষ্ঠানে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহীতা থাকতে হবে। সেখানে যেনও নিয়মের ব্যত্যয় না ঘটে। তাহলে শিক্ষার যে উদ্দেশ্যে সেটিও সহজভাবে অর্জিত হবে। মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা শিক্ষায় আমূল পরিবর্তন আনার চেষ্টা করছি। আমাদের যে কারিকুলাম, সেই কারিকুলামে যদিও ২০১২ সাল থেকে সৃজনশীল পদ্ধতিতে পাঠদান করা হচ্ছে, তারপরও আমাদের শিক্ষা আন্দময় ছিল না। আমাদের শিক্ষার্থীদের ওপর পড়াশোনায় ভীষণ চাপ ছিল। তাছাড়া যেভাবে পড়ানো হয় এবং আমাদের যে ক্লাস সাইজ, যত শিক্ষার্থী একটি ক্লাসে থাকে, তাতে কোনো শিক্ষকের পক্ষেই সব শিক্ষার্থীর প্রতি ক্লাসে সমান মনোযোগ দেওয়া সম্ভব নয়। এরকম নানান সমস্যা, সীমাবদ্ধতা রয়েছে।
শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা যে অভিষ্ঠ লক্ষ্য ঠিক করেছি, ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত সমৃদ্ধ শান্তিময় বাংলাদেশ গড়ে তুলব,২০৩০ সালের মধ্যে আন্তর্জাতিক যে অঙ্গীকার টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যগুলো অর্জন করব, ২০৩১ সালের মধ্যে আমাদের ডেমোগ্রাফিক ডিবিডেন্ট অর্জন করার সময়সীমা রয়েছে, এ সময়ের মধ্যেই ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ট অর্জন করতে হবে এবং চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যলেঞ্জ মোকাবিলায় উপযুক্ত করে আমাদের শিক্ষার্থীদের গড়ে তুলতে হবে, এসব লক্ষ্য অর্জনের জন্য আমাদের শিক্ষাক্রমে ব্যাপকভাবে পরিবর্তন নিয়ে এসেছি। আমাদের শিক্ষার্থীরা মুখস্ত করবে না, পরীক্ষার চাপে জর্জরিত হবে না, শিক্ষা হবে আনন্দময়, সক্রিয় শেখা ও অভিজ্ঞতাভিত্তিক শেখা।’