উন্নয়নের গতি অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনার কোনো বিকল্প নেই

প্রকাশিত : আগস্ট ৩০, ২০২২ , ১০:৫১ অপরাহ্ণ

নওগাঁ, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে বর্তমান সরকারের সময় দেশে অভাবনীয় উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। উন্নয়নের এই অগ্রগতি অব্যাহত রাখতে হলে দেশ পরিচালনার ক্ষেত্রে পুনরায় শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগের কোনো বিকল্প নেই। ‘কারণ বিএনপি ক্ষমতায় এলে দেশে আবারো সন্ত্রাস, আগুন সন্ত্রাস, বোমাহামলা আর জঙ্গিবাদের উত্থান ঘটবে এবং যারা আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়েছিল, যাদের সময় বিদ্যুৎ আর সারের জন্য মানুষ হত্যা করা হয়েছিল, যারা দুর্নীতিতে পর পর ৫ বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশের মানুষ তাদের আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না’ বলেন তিনি। মঙ্গলবার নওগাঁ নওজোয়ান ঈদগাহ মাঠে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত ’১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে বিশাল শোক সমাবেশে’ প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন। নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক এমপি মোঃ আব্দুল মালেকের সভাপতিত্বে সমাবেশে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, কেন্দ্রীয় কমিটির স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, নওগাঁর শহিদুজ্জামান সরকার এমপি, ব্যারিস্টার নিজাম উদ্দিন জলিল জন এমপি, মোঃ ছলিম উদ্দিন তরফদার এমপি এবং মোঃ আনোয়ার হোসেন হেলাল এমপি বক্তব্য রাখেন। ড. হাছান বলেন, ‘বিএনপি’র সময় বিদ্যুতের খাম্বা রাজনীতির কথা সবার জানা আছে। সে সময় বিদ্যুৎ আর সারের জন্য মানুষকে হত্যা করা হয়েছিল। বিএনপি’র সময় মাঝে মাঝে বিদ্যুৎ আসতো। আর এখন মাঝে মাঝে বিদ্যুৎ যায়। ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে সারা পৃথিবীতে কিছুটা বিরূপ প্রভাব পড়েছে, বাংলাদেশও এর বাইরে নয় উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্বের উন্নত দেশগুলোতেও জ্বালানি-বিদ্যুৎ সংকটে মানুষ কষ্ট পাচ্ছে, সেখানে সরকারিভাবে মানুষকে সাশ্রয়ী করতে নানা পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। তবে আশার কথা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর সুদূরপ্রসারী নেতৃত্ব দিয়ে ইতিমধ্যে জ্বালানি তেলের মূল্য সমন্বয় করার পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। আর কিছুদিনের মধ্যেই মানুষের জীবনযাত্রা স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে।’ ড. হাছান মাহ্মুদ বলেন, ‘মানুষের এই সাময়িক কষ্ট দেখে বিএনপি মায়াকান্না দেখাচ্ছে। কিন্তু বিএনপি’র এই অধিকার নেই। কারণ দেশের মানুষের দুঃখ-কষ্ট আওয়ামী লীগের মতো আর কেউ বোঝে না। তবে সরকারের উদারতা দেখে বিএনপি যদি আবারো আগুনসন্ত্রাস, নাশকতা, মানুষ হত্যার রাজনীতি শুরু করে সেক্ষেত্রে আওয়ামী লীগ বসে থাকবে না। জনগণকে সাথে নিয়েই প্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে। সরকারও চুপচাপ বসে থাকবে না, প্রশাসন শক্ত হাতে তা প্রতিরোধ করবে।’