সরকার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বৈষম্যহীন সমাজ বিনির্মাণে কাজ করে যাচ্ছে

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ১০, ২০২২ , ২:২১ পূর্বাহ্ণ

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মোঃ ফরিদুল হক খান, সংগৃহীত চিত্র।

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মোঃ ফরিদুল হক খান বলেছেন, হাজার বছরের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বৈষম্যহীন সমাজ বিনির্মাণে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। প্রতিমন্ত্রী শুক্রবার ঢাকার মেরুল বাড্ডায় আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ বিহারে বাংলাদেশ বুদ্ধিস্ট ফেডারেশন, উইমেন্স কর্তৃক ‘শুভ মধু পূর্ণিমা-২০২২’ উপলক্ষ্যে আয়োজিত ‘শুভ মধু পূর্ণিমার তাৎপর্য ও বুদ্ধের মানবতাবাদ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীগণ যুগ যুগ ধরে বাংলাদেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। তিনি বলেন, মহাস্থানগড়, সৌমপুর বিহার, ময়নামতি বিহার, বাংলা সাহিত্যের আদি কবিদের রচিত চর্যাপদ এ অঞ্চলে উন্নত বৌদ্ধ সভ্যতার সাক্ষ্য বহন করে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হয়েছে। তিনি বলেন, বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের আমানত তহবিল ৪ কোটি টাকা হতে ৭ কোটি টাকায় বৃদ্ধি করা হয়েছে। তিনি বলেন, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় হতে ২০০৯ হতে ২০২০ খ্রি. পর্যন্ত ১৪৯৪টি বৌদ্ধ প্যাগোডা ও শ্মশানে ৪০ কোটি ২৮ লাখ ৯ হাজার টাকা অনুদান প্রদান করা হয়েছে। প্রতিমন্ত্রী বলেন ‘প্যাগোডা ভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক ও ধর্মীয় শিক্ষা প্রকল্প’ এর আওতায় ২০১৫ সাল হতে ২০১৭ সাল পর্যন্ত মোট ১০০টি শিক্ষা কেন্দ্রে ৬ হাজার বৌদ্ধ শিশুকে শিক্ষা প্রদান করা হয়েছে। বর্তমানে এ প্রকল্পের ২য় পর্যায়ে ১২টি জেলার ৬২টি উপজেলায় ৩০০টি শিক্ষাকেন্দ্রের মাধ্যমে ২০ হাজার বৌদ্ধ শিশুকে প্রাক-প্রাথমিক, ধর্মীয় ও নৈতিকতা শিক্ষা প্রদান করা হচ্ছে। আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ বিহারের বিহারাধ্যক্ষ ভদন্ত ধর্ম মিত্র মহাথেরোর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরো বক্তব্য রাখেন রাষ্ট্রপতি কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ুয়া, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ভাইস চেয়ারম্যান সুপ্ত ভূষন বড়ুয়া, বাংলাদেশ বুদ্ধিস্ট ফেডারেশনের সভাপতি প্রকৌশলী দিব্যেন্দু বিকাশ বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক শ্রীমৎ ভিক্ষু সুনন্দপ্রিয়, বাংলাদেশ বুদ্ধিস্ট ফেডারেশন উইমেন্স এর সভাপতি অধ্যাপিকা ডা.দীপি বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপিকা সুদীপা বড়ূয়া প্রমুখ।