শেখ হাসিনা কৃষকের মুখে হাসি দেখতে চান

প্রকাশিত : অক্টোবর ২২, ২০২২ , ৭:০১ অপরাহ্ণ

শরীয়তপুর, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষকের মুখে স্থায়ী হাসি দেখতে চান। বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। এমনকি বাংলাদেশি খাদ্য বিদেশেও রফতানি করা হয়। তিনি আরো বলেন, দেশের কৃষিতে হাওরের মানুষের অনেক অবদান রয়েছে। সরকার হাওরের মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য কাজ করছে। উপমন্ত্রী শনিবার শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলা অডিটোরিয়ামে কৃষক সমাবেশ ও সেচযন্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। উপমন্ত্রী শামীম বলেন, কৃষি উন্নয়নে বর্তমান সরকার প্রায় ২ কোটি কৃষককে কৃষি উপকরণ সহায়তা কার্ড দিয়েছে। কৃষককে মাত্র ১০ টাকায় ব্যাংক একাউন্ট খোলার সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে। সারের দাম কয়েক দফা কমিয়ে সর্বনিম্ন দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। আর বিএনপির সময়ে সারের দাম ছিলো কৃষকের নাগালের বাইরে। তিনি আরো বলেন, কৃষি প্রণোদনা ও পুনর্বাসন কর্মসূচির আওতায় প্রতি বছর কয়েক লাখ কৃষককে বিনামূল্যে ভালো মানের উন্নত জাতের বীজ, সার ও অন্যান্য উপকরণ দেওয়া হচ্ছে। কৃষি যান্ত্রিকীকরণের জন্য ৩ হাজার ২০০ কোটি টাকার প্রকল্প চলমান রয়েছে যার আওতায় ৫০% থেকে ৭০% ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি দেওয়া হচ্ছে। উপমন্ত্রী আরো বলেন, নদীভাঙন ঠেকাতে সারা দেশে বিভিন্ন স্থায়ী প্রকল্প চলমান রয়েছে এবং নতুন নতুন প্রকল্প হাতে নেওয়া হচ্ছে। এছাড়া সারাদেশে নদীভাঙন এলাকা চিহ্নিত করা হয়েছে। সেখানে স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ করা হচ্ছে, বাঁধ প্রশস্তকরণ হচ্ছে, বনায়নও করা হচ্ছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও জনগণের সঙ্গে কথা বলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জ্যোতি বিকাশ চন্দ্রের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মো. পারভেজ হাসান, নড়িয়া উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম ইসমাইল হক, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর শরীয়তপুরের উপ-পরিচালক মো. মাতলুবুর রহমান, নড়িয়া পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।