শেখ হাসিনার বিকল্প শেখ হাসিনা নিজেই

প্রকাশিত : নভেম্বর ৩০, ২০২২ , ৭:২৪ অপরাহ্ণ

পটিয়া, চট্টগ্রাম, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক এমপি বলেছেন, বাংলাদেশ আজ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। বাংলাদেশের আর্থসামাজিক উন্নয়ন এবং আন্তর্জাতিক নানান ইস্যুতে বঙ্গবন্ধু কন্যা মননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিচক্ষণ ও বলিষ্ঠ নেতৃত্ব জাতি হিসেবে আমাদের গৌরবান্বিত করেছে। আশা জাগিয়েছে বাংলাদেশ একদিন তাঁর হাত ধরে উন্নয়নের সব ধাপ অতিক্রম করে বিশ্বের উন্নত দেশগুলোর সঙ্গে এক কাতারে শামিল হবে। আমাদের পরম সৌভাগ্য যে,আমরা শেখ হাসিনার মত ভিশনারী,কর্মঠ ও প্রচণ্ড সৎ এমন বিরল নেতা পেয়েছি। তৃতীয় বিশ্বের দেশে একজন শেখ হাসিনার মত নেতা দেশকে কিভাবে দ্রুত এগিয়ে নিতে পারেন তা শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্ব না দেখলে কেউ বিশ্বাস করবে না। তাই শেখ হাসিনার বিকল্প শেখ হাসিনা নিজেই। বুধবার চট্রগ্রামের পটিয়া উপজেলায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের বাস্তবায়নাধীন ‘বন্যা-নিয়ন্ত্রণ, নিষ্কাশন ও সেচ প্রকল্প’ এর উদ্বোধন কালে তিনি এসব কথা বলেন। প্রতিমন্ত্রী জাহিদ বলেন, শেখ হাসিনা তাঁর জীবন বাংলার মেহনতি দুখী মানুষের কল্যাণে উৎসর্গ করেছেন। রাজনীতির মাধ্যমে মানুষের কল্যাণই তার রাজনীতির দর্শন। তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে যেমন দৃঢ় প্রতিজ্ঞ তেমনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় একটি উদার গণতান্ত্রিক ও অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশেরও প্রতিচ্ছবি।কোনো প্রধানমন্ত্রী সৎ ও আন্তরিক থাকলে যে দেশের উন্নয়ন হয় তার প্রমাণ শেখ হাসিনা। তিনি বিশ্বাস করেন আমরা পারি, বাঙালীরা পারে। তিনি বলেন, সমুদ্র বিজয়, নিজস্ব স্যাটেলাইটের মাধ্যমে মহাকাশ বিজয়, নারীর ক্ষমতায়ন, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ,নদী ভাঙ্গন রোধ ও নদী পুনরুদ্ধারে কঠোর নির্দেশনায় সুফল আজ দৃশ্যমান। পানি সম্পদের টেকসই ব্যবস্থাপনা ও জলবায়ুর বিরূপ পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় সক্ষম শতবর্ষী “ব-দ্বীপ পরিকল্পনা-২১০০” প্রণয়ন এবং অর্থনৈতিক উন্নয়ন,স্বাধীনতার মর্যাদা রক্ষা সমুজ্জ্বল করেছে দেশ ও দেশ বাসিকে।দেশে উন্নয়নের অদম্য গতিকে অব্যাহত রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অপরিহার্য। বাংলাদেশে কেউ গৃহহীন ও ভূমিহীন থাকবে না সাবর জন্য মাথা গোঁজার ভরসা বঙ্গবন্ধু কন্যা। প্রত্যেকেই সুন্দরভাবে বাঁচবে,সেটাই তিনি চান ।তার একাগ্রতা,দৃঢ়তা ও দূরদর্শী নেতৃত্ব দেশের খাদ্য-নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছে। তিনি আরো বলেন, বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের মর্যাদা বৃদ্ধিকরে দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে প্রয়োজন বঙ্গবন্ধু কন্যা।চলমান মহা-কর্মযজ্ঞ বাস্তবায়ন করে ২০৪১ সালের উন্নত বাংলাদেশে রূপান্তরের জন্য প্রয়োজন বিচক্ষণ ও বলিষ্ঠ নেতৃত্ব।কৃষি ও কৃষদের ভাগ্য-উন্নয়নে,সবার জন্য স্বাস্থ্য সেবা,শিক্ষা ব্যবস্থা উন্নতর পর্যায় নিতে,বাংলাদেশকে বিশ্বের বুকে শান্তিতে মডেল হিসেবে পরিচিত করতে,সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে শেখ হাসিনার মতো মানবিক ও উদার রাষ্ট্র নায়ক প্রয়োজন। বাংলাদেশের মানুষ স্বাধীনতার পর এমন নজিরবিহীন উন্নয়ন প্রত্যক্ষ করতে পারছে। বঙ্গবন্ধুর রক্তের যোগ্য উত্তরসুরী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরেই বাংলাদেশ উন্নয়নের মহাসড়কে এক বিস্ময় বিশ্ববাসীর কাছে। বর্তমানে দেশে ও দেশের বাইরে ভিশনারী লিডার হিসেবে শেখ হাসিনার যে ঈর্ষণীয় সাফল্য তা এক কথায় অনন্য ও অসাধারণ। প্রতিমন্ত্রী সবার কাছে আহবান জানান আগামী নির্বাচনে দেশের উন্নয়নের স্বার্থে উন্নত বাংলাদেশে, শান্তি ও সম্প্রীতির বাংলাদেশ বিনির্মাণে শেখ হাসিনাকে ৫ম বারের মত নির্বাচিত করে রাষ্ট্র ক্ষমতায় নিয়ে আসতে হবে। উল্লেখ্য,এই প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ১ হাজার ১৫৮ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। এ প্রকল্পের অধীনে সাড়ে ২৫ কিলোমিটার বাঁধ,৪ কিলোমিটার ফ্লাড ওয়াল এবং ২৬টি খালের ওপর ছোট-বড় রেগুলেটর নির্মাণসহ প্রায় ৩ কিলোমিটার নদী তীর সংরক্ষণের কাজ হবে। ২৬টি খালের ওপর রেগুলেটর নির্মাণ,৩০ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে ১১টি খাল পুনঃ-খনন,সাড়ে ২৫ কিলোমিটার বাঁধ নির্মাণ এবং ৪.১০ কিলোমিটার ফ্লাডওয়াল নির্মাণ করা হবে।প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে দক্ষিণ চট্টগ্রামের ৩২ হাজার হেক্টর জমিতে সেচ সুবিধা ও সাড়ে ১৩ হাজার হেক্টর জমির ফসল রক্ষা পাবে। নতুন করে চাষের আওতায় আসছে আরও ১০ হাজার হেক্টর অনাবাদি জমি,পাশাপাশি নদী ও খালের ভাঙন থেকে সুরক্ষা পাবে কর্ণফুলী,চন্দনাইশ ও বোয়ালখালী উপজেলা।প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে পটিয়ায় ২ লাখ মেট্রিক টন খাদ্য শস্য উৎপাদনসহ যোগাযোগ ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হবে।
প্রধান প্রকৌশলী (পুর),দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চল চট্টগ্রাম মো: রমজান আলী প্রমানিক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী,এমপি, অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মিজানুর রহমান,পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক ইঞ্জি:বজলুর রশিদ,অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পূর্ব রিজিয়ন)মোঃ মাহবুর রহমান ও চট্টগ্রাম সার্কেলর তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী শীবেন্দু খাস্তগীরসহ চট্টগ্রামের পাউবির অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।