বাংলাদেশে এখন বিনিয়োগের সর্বাত্মক পরিবেশ রয়েছে

প্রকাশিত : মার্চ ১২, ২০২৩ , ১১:২৬ অপরাহ্ণ

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, বীরপ্রতীক বলেছেন, বাংলাদেশে এখন বিনিয়োগের সর্বাত্মক পরিবেশ রয়েছে। সরকার যোযোগাযোগ খাতে ব্যাপক উন্নয়ন করেছে। নতুন নতুন সড়ক ও ব্রিজ নির্মিত হয়েছে। আমরা পদ্মাসেতু করেছি নিজের টাকায়, ফলে যোগাযোগে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে৷ সরকার বিনিয়োগকে সহজীকরণ করেছে। দেশে বিনিয়োগকে উৎসাহিত করতে সরকার সব ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত রেখেছে। রবিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) এফবিসিসিআই আয়োজিত চলমান বাংলাদেশ বিজনেস সামিটের দ্বিতীয় দিনে তৈরিপোশাক খাত থেকে ১০০ বিলিয়ন ডলার আয় ও করণীয় শীর্ষক এক সেশনে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যবসাবান্ধব। প্রধানমন্ত্রী তৈরিপোশাক খাতকে ব্যাপক সহযোগিতা দিয়েছেন। করোনায় যেখানে সারাবিশ্ব থমকে গিয়েছিল সেখানে প্রধানমন্ত্রী এ খাতকে সচল রাখতে ৫ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা দিয়েছিলেন। এজন্য আমদের রপ্তানিখাতে কোনো নেতিবাচক প্রভাব না পরে, রপ্তানি বাড়ছে। গতবছর আমরা ৫২ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রপ্তানি করেছে। আশা করি, আগামীতে আমরা গার্মেন্টস থেকেই ১০০ বিলিয়ন ডলার রপ্তানি আয় করব। মন্ত্রী আরো বলেন, বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে সংকট সমাধানে জ্বালানির দাম সমন্বয় করা হয়েছে। দেশের শিল্পকারখানায় এরই মধ্যে জ্বালানির সরবরাহ বেড়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, আগামী কয়েকদিনের মধ্যে শিল্পকারখানায় গ্যাসের সংকট কেটে যাবে। কারখানাগুলোতে আগের চেয়ে আরো বেশি গ্যাসের চাপ পাওয়া যাবে। অনুষ্ঠানে বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান, বিকেএমইএর নির্বাহী সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম, বিজিএমইএ ও এফবিসিসিআইর সাবেক সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, বিটিএমএর সভাপতি মোহাম্মদ আলী খোকন, বিটিএমএ’র পরিচালক আজিজুর আর চৌধুরী, বিজিএমইএর পরিচালিক আসিফ আশরাফ, ওয়ালমার্টের সিনিয়র ডিরেক্টর শ্রী দেবী কালাভাকোনালো প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।