ভূমি ব্যবস্থাপনায় ১ ব্যক্তি ১ খতিয়ান ১ ম্যাপ প্রক্রিয়া চালু করার পরিকল্পনা

প্রকাশিত : জুন ১২, ২০২৪ , ৭:৫৫ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: ভূমিমন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ বলেছেন, সরকারের ভূমি ব্যবস্থাপনায় ১ ব্যক্তি, ১ খতিয়ান, ১ ম্যাপ প্রক্রিয়া চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে। তিনি বলেন, উত্তরাধিকার জমির ক্ষেত্রে রেজিস্ট্রিকৃত বণ্টন-নামা বাধ্যতামূলক করার বিষয়টিও যাচাই করা হচ্ছে। এই উদ্যোগগুলো ভূমি বিষয়ক মামলা-মোকদ্দমা ও বিবাদ কমানোর লক্ষ্যেই গ্রহণ করা হয়েছে। বুধবার (১২ জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ) চট্টগ্রামের জিমনেশিয়াম হলে ‘ভূমিসেবা সপ্তাহ ২০২৪’ উপলক্ষ্যে আয়োজিত ‘স্মার্ট বাংলাদেশ: স্মার্ট ভূমি সেবা ও ভূমি ব্যবস্থাপনা প্রেক্ষিত’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথা বলেন। চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় ও চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন যৌথভাবে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। মন্ত্রী বলেন, জমির ব্যবস্থাপনা সুষ্ঠু না হলে উন্নয়ন কার্যক্রম টেকসই হবে না। ভূমি মানুষের অস্তিত্বের সাথে জড়িয়ে রয়েছে এবং প্রতিটি উন্নয়ন কাজে ভূমির সম্পর্ক আছে। স্মার্ট বাংলাদেশ পরিকল্পনায় স্মার্ট ভূমিসেবা গুরুত্বপূর্ণ অংশ। তিনি কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, ভূমিসেবা গ্রহীতাদের ভালো ব্যবহারের মাধ্যমে সেবা দিতে হবে। কৃষি জমির শ্রেণি পরিবর্তন করা যাবে না। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর স্পষ্ট নির্দেশনা আছে। একইসাথে নদী রক্ষার বিষয়টি গুরুত্ব-সহকারে দেখতে হবে। অনুষ্ঠান-স্থলে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ভূমিমন্ত্রী জানান, ভূমি অপরাধ প্রতিরোধ ও প্রতিকার আইনের বিধি আইন মন্ত্রণালয়ে রয়েছে। প্রয়োজনীয় ভেটিং প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পর আইন মন্ত্রণালয় থেকে তা ভূমি মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা মাত্র ভূমি অপরাধ প্রতিরোধ ও প্রতিকার আইনের বিধিমালা জারি করা হবে। চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার মোঃ তোফায়েল ইসলাম, ভূমি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ এমদাদুল হক চৌধুরী, চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি, চট্টগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার আ স ম মাহতাব উদ্দিন ও চট্টগ্রাম রেঞ্জ অতিরিক্ত ডিআইজি প্রবীর কুমার রায়। বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চট্টগ্রাম মহানগর ইউনিট ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ শহীদুল হক চৌধুরী এবং চট্টগ্রাম জেলা ইউনিটের ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা এ কে এম সরোয়ার কামাল সম্মানীয় অতিথি হিসেবে এ সময় উপস্থিত ছিলেন। প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষে ভূমিমন্ত্রী ভূমিসেবা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে আয়োজিত কুইজ প্রতিযোগিতার বিজয়ী স্কুল শিক্ষার্থীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। এরপর তিনি ভূমি অধিগ্রহণে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ক্ষতিপূরণের চেক এবং আবেদনকারীদের নিকট খতিয়ানের নকলের কপি হস্তান্তর করেন। উল্লেখ্য, গত ৮ জুন থেকে শুরু হওয়া ‘ভূমিসেবা সপ্তাহ’আগামী ১৪ জুন শেষ হবে।

[wps_visitor_counter]