সবাইকে দেশের সার্বিক কল্যাণে আত্মনিয়োগ করতে হবে: শিল্প প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত : জুন ২৭, ২০২২ , ৯:০৯ অপরাহ্ণ

শিল্প প্রতিমন্ত্রী বীর-মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কামাল আহমেদ মজুমদার, সংগৃহীত চিত্র।

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: শিল্প প্রতিমন্ত্রী বীর-মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কামাল আহমেদ মজুমদার বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে সবাইকে দেশের সার্বিক কল্যাণে আত্মনিয়োগ করতে হবে।
সোমবার রাজধানীর মিরপুর-১৩ এলাকায় বনফুল আদিবাসী গ্রিনহার্ট কলেজ প্রাঙ্গণে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নবীনবরণ ও কৃতী শিক্ষার্থীদের সম্মাননা ২০২২ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রতিমন্ত্রী একথা বলেন।
শিল্প প্রতিমন্ত্রী সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে গভীর শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করে বলেন, বঙ্গবন্ধুকে বাদ দিয়ে বাংলাদেশকে কল্পনা করা যায় না, কারণ বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ এক ও অভিন্ন। তাই ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে বাংলাদেশের প্রকৃত ইতিহাস সম্পর্কে জানতে হবে। শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড। তাই বর্তমান সরকার শিক্ষাকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের বাজেটে এই খাতে সর্বোচ্চ ৮১ হাজার ৪৪৯ কোটি বরাদ্দের প্রস্তাব করেছে। তিনি বলেন, কোভিড-১৯ চলাকালীন শিক্ষার্থীদের জীবন রক্ষায় দীর্ঘ সময় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও পরবর্তীতে সরকারের দিকনির্দেশনা মোতাবেক কোভিড-১৯ টিকাসহ স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হয়েছে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, রাজধানীর বনফুল আদিবাসী গ্রিনহার্ট কলেজটি সকল ধর্মের শিক্ষার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকলেও একটি কুচক্রী মহল ধর্মের দোহাই দিয়ে প্রতিষ্ঠানটিকে বন্ধ করে দেয়ার অপচেষ্টা চালালেও তাদের সেই অপচেষ্টা সফল হয়নি, সকলের আন্তরিক সহযোগিতায় প্রতিষ্ঠানটি স্বাভাবিকভাবে পরিচালিত হচ্ছে। কামাল আহমেদ মজুমদার বলেন, এসএসসি, এইচএসসি এবং অন্যান্য পাবলিক পরীক্ষার ফলাফলসহ সার্বিক বিবেচনায় মনিপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ দেশের অন্যতম শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। মনিপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের রূপনগর শাখায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের নামে একটি আধুনিক ও বিশ্বমানের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হবে। প্রধান অতিথি হিসেবে অন্য অতিথিবৃন্দকে সাথে নিয়ে শিল্প প্রতিমন্ত্রী অত্র প্রতিষ্ঠান থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ও উচ্চতর শিক্ষা লাভের জন্য বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পাওয়া ৩২ জন কৃতি শিক্ষার্থীদের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন।