একজন সফল রাজনীতিবিদ শৈলকূপার আব্দুল হাই এমপি

প্রকাশিত : জুলাই ৬, ২০২২ , ১২:১৫ অপরাহ্ণ

হেলালী ফেরদৌসি, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: মো: আব্দুল হাই এমপি ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের অভিভাবক ও ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি। শৈলকূপা উপজেলার রাজনীতিবিদ, ঝিনাইদহ-১ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ প্রতিমন্ত্রী এবং বহু চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে আজ তিনি একজন সফল রাজনীতিবিদ। শৈলকূপার আব্দুল হাই এমপি আমাদের গর্ব, আমাদের অহংকার। মো: আব্দুল হাই রাজনীতির সঙ্গে স্কুল জীবন থেকেই সক্রিয় ভাবে যুক্ত আছেন। কখনো কোনদিন নিজের এবং ব্যক্তিগত স্বার্থে নিজ দল আওয়ামী লীগের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেননি। দলের স্বার্থের পরিপন্থী কোন আজ অবধি তিনি কখনো করেননি। তিনি ১৯৬৮ সালে মহকুমা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ও ১৯৬৯ সালে সরকারি কেসি কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি নির্বাচিত হন। একই বছর তিনি বৃহত্তর যশোর জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন। ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধ শুরু হলে তিনি ঝিনাইদহে স্বাধীন বাংলার প্রথম পতাকা উত্তোলন করেন। দেশ স্বাধীনের পর তিনি ঝিনাইদহ যুবলীগের আহ্বায়ক ও ১৯৭৩ সালে যুবলীগের মহকুমা সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮৭ সালে তিনি ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ১৯৯৮ সালে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ২০০৫ সালে আব্দুল হাই ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হন। ২০০১ সালের অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচন থেকে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে ঝিনাইদহ-১ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য।২০১৪ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত তিনি মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। আব্দুল হাই এমপি একজন জনপ্রিয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, বীর মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক শৈলকূপা গণমানুষের অতি কাছের মানুষ তিনি। নীতি-নৈতিকতা তার অনন্য সম্পদ। আব্দুল হাই এমপি ঝিনাইদহ জেলা ও শৈলকূপা উপজেলা আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করতে তার গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন এবং ঝিনাইদহ জেলা ও শৈলকূপা আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী সাংগঠনিক ভিত্তির ওপর দাঁড় করিয়েছেন তিনি। একজন সৎ ও আদর্শবান রাজনৈতিক হিসেবে তিনি এ জেলাতে পরিচিত। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে আব্দুল হাই একজন দক্ষ-নেতা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জননেত্রী শেখ হাসিনার সোনার বাংলা বিনির্মাণ তার একমাত্র লক্ষ্য। ঝিনাইদহ জেলার ভিআইপি আসন হিসেবে পরিচিত, ঝিনাইদহ-১ (শৈলকূপা) আসন। ঝিনাইদহ-১ আসনে মোট ভোটার সংখ্যা দু’লাখ ৭৬ হাজার ৩৩৪ জন। ১৯৭৩ সালের নির্বাচনে এ আসন থেকে নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগের ডা. কাজী খাদেমুল ইসলাম, ১৯৭৯ সালে জাসদের গোলাম মোস্তফা, ১৯৮৬ সালে আওয়ামী লীগের অধ্যক্ষ মো. কারুজ্জামান, ১৯৮৮ সালে জাসদের দবির উদ্দিন জোয়ার্দ্দার, ১৯৯১ সালে বিএনপির আব্দুল ওহাব, ১৯৯৬ নালে বিএনপির আব্দুল ওহার, ২০০১, ২০০৮ ও ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগের আব্দুল হাই নির্বাচিত হন।