তাইপেতে স্পীকার ন্যান্সী পেলোসির আগমনে ওয়ার্কার্স পার্টির বিবৃতি

প্রকাশিত : আগস্ট ৩, ২০২২ , ৪:২৭ অপরাহ্ণ

ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো বুধবার (৩ আগস্ট) দেয়া এক বিবৃতিতে তাইওয়ানে মার্কিন যুদ্ধ বিমান করে মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পীকার ন্যান্সী পেলোসির আগমনকে চরম উস্কানিমূলক ও একইসঙ্গে প্রতারণামূলক বেপরোয়া আচরণ বলে আখ্যায়িত করেছে। ইউক্রেন রাশিয়া যুদ্ধকে কেন্দ্র করে সমস্ত পৃথিবী যখন এক অশান্ত সময় অতিক্রম করছে, তখন পেলোসির তাইপে সফর ঐ অশান্তিকে আরও বিস্তৃত করবে। বস্তুত: ন্যাটো সম্প্রসারণের নামে নব্য নাজী জেলেনেস্কীকে দিয়ে ইউরোপে তারা যে যুদ্ধের সূচনা করেছে, তাই এখন তাইওয়ানকে অজুহাত করে এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে ছড়িয়ে দিতে চায়। ন্যান্সী পেলোসির এই আচরণ প্রতারণামূলক এই কারণে যে এটা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বীকৃত এক চীন নীতির বিরোধী। তাইওয়ানে গণতন্ত্রের বিস্তৃতির নামে পেলোসি ও যুক্তরাষ্ট্র যে পদক্ষেপ নিল তা গণতন্ত্রের বিরুদ্ধাচারই কেবল নয়, শান্তি, প্রগতি ও সমৃদ্ধ বিশ্ব গড়ে তোলার বিরোধী। ওয়ার্কার্স পার্টি আশা করে চীন তার স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বের বিরুদ্ধে মার্কিনীদের উস্কানিমূলক আচরণের ফাঁদে পা দেবে না এবং এই অঞ্চলের শান্তি স্থিতিশীলতা ও বিশ্বশান্তি স্থিতিশীলতার জন্য যে নীতি অনুসরণ করছে ও তার পিছনে বিশ্বের সকল শান্তিকামী দেশ ও জনগণকে সমবেত করে মার্কিনী এই ঘৃণ্য প্রয়াসকে পরাজিত করবে। ওয়ার্কার্স পার্টি বলতে চায়, বাংলাদেশ এক চীন নীতিতে দৃঢ়ভাবে অটল এবং তাইওয়ানকে কেন্দ্র করে মার্কিনী পদক্ষেপকে ঘৃণা ভরে নিন্দা করে ও প্রত্যাখ্যান করে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তির।