বিএনপির আগুন সন্ত্রাসে পুড়লো ঝিনাইদহের ডাকবাংলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়

প্রকাশিত : আগস্ট ৩০, ২০২২ , ৮:৪২ অপরাহ্ণ

হেলালী ফেরদৌসী, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ডাকবাংলা ত্রিমোহনী এলাকায় ৩নং সাগান্না ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়টি গভীর রাতে অগ্নিসংযোগ করেছে বিএনপি-জামায়াতের আগুন সন্ত্রাসী বাহিনী কার্যালয়ে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটিয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সেখানে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ততক্ষণে পুড়ে ভস্মীভূত হয় আ’লীগ অফিস ও অফিসের ভেতরে থাকা সকল আসবাবপত্র। সাগান্না ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক শাহীন রেজা অভিযোগ করে বলেন, রাতের কোনও এক সময়ে বিএনপি ও জামায়াতের নেতাকর্মীরা দলীয় কার্যালয়ে অগ্নিসংযোগ করে পালিয়ে যায়। মঙ্গলবার (৩০ আগস্ট) রাত সাড়ে ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। অগ্নিকান্ডে দলীয় কার্যালয়ের আসবাবপত্রসহ অন্যান্য মালামাল পুড়ে যায়। সেসময় পাশের একটি দোকানও আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানা জানান, ‘রাতে আগুন লাগার একটি ঘটনা ঘটেছে। আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এটি বিএনপি-জামায়াতের নাশকতা নাকি অন্য কোনও কারণে আগুন লেগেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। প্রাথমিক ভাবে গান পাউডার, বা পেট্রোলের কোন নমুনা পাওয়া যায়নি। আরও তদন্ত শেষে হয়তো সঠিক ঘটনা জানা যাবে। পরবর্তীতে কেউ জড়িত থাকলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ঝিনাইদহ ফায়ার সার্ভিসের সাব-স্টেশন অফিসার রাউফ মোল্লা জানান, ঘটনার পর খবর পেয়ে আমরা সেখানে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনি। তবে ঠিক কিভাবে আগুন লেগেছে তা এখনও জানা যায়নি। প্রাথমিকভাবে গান পাউডার বা পেট্রোলের কোনও নমুনা পাওয়া যায়নি। তবে আরও তদন্ত শেষে হয়তো সঠিক ঘটনা জানা যাবে। সাগান্না ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইউনুস আলী জানান, বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীরা জনমনে ভীতি তৈরি করতে দলীয় কার্যালয়ে অগ্নিসংযোগ করেছে। তারা দেশকে যে অস্থিতিশীল করতে চাই এটা তারই একটি নমুনা। পাল্টা অভিযোগ করে জেলা বিএনপি সভাপতি অ্যাড. এম এ মজিদ বলেন, নিজেদের সাংগঠনিক দুর্বলতার কারণে বিএনপির নেতাকর্মীদের হয়রানি করার জন্য আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা নিজেদের দলীয় কার্যালয়ে আগুন দিয়েছে । ঘটনা শোনার পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন, ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ। জেলা আ’লীগের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য, উত্তর নারায়ণপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে মিটিং করে এই আগুন দিয়েছে বিএনপির সন্ত্রাসীরা। কারণ সদর উপজেলার উত্তর নারায়ণপুর ত্রিমোহনী বাজারে দলীয় কার্যালয়ে রাত সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত পিকনিক করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।তারপর নেতা-কর্মীরা সকলের বাড়িতে ফিরে যায়। স্থানীয় নেতারা বলেন, টিন শেডের এই অফিসে দুটি সিলিং ফ্যান, দুটি কাঠের নকশা চেয়ার, টেবিল ও রাতে পিকনিক করার পরে হাড়ি-পাতিলসহ ২১ আগস্ট উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা সভায় গণভোজ করার জন্য চাল রাখা ছিল বলে জানিয়েছে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। তারা বলছে রাত ৩টার পরে এই আগুন লাগানো হয়েছে। আগুনে অফিসের সব কিছু পুড়ে ছারখার হয়ে গেছে। ২৪ ঘন্টার মধ্যে এই ঘটনা তদন্ত করে জড়িতদের আইনের আওতায় আনার দাবি করেছেন জেলা আওয়ামীলীগের নেতারা। স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দরা এই ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানান। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশ বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।