বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা জোরদার করতে অর্থমন্ত্রীর আহ্বান

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২২ , ১০:২৭ অপরাহ্ণ

ম্যানিলা, ফিলিপাইন, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: বুধবার ম্যানিলায় এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) এর সদর দপ্তরে বার্ষিক সভার অংশ হিসেবে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সাথে মালয়েশিয়ার উপ-অর্থমন্ত্রীর নেতৃত্বে প্রতিনিধিদলের দ্বিপাক্ষিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠকের শুরুতে অর্থমন্ত্রী গত বছর বাংলাদেশকে AstraZeneca ভ্যাকসিনের ৫ লাখ ৫৯ হাজার ২০০ ডোজ প্রদান করায় মালয়েশিয়া সরকারের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার মধ্যে ঊর্ধ্বগামী বাণিজ্য বিদ্যমান। বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার ভ্রাতৃত্বপূর্ণ কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি উদ্‌যাপিত হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি এ সম্পর্ক আরো জোরদার করার আহ্বান জানান।

অর্থনীতির সব সেক্টরে বাংলাদেশি কর্মীদের নিয়োগের সুযোগ উন্মুক্ত করার বিষয়ে মালয়েশিয়া সরকারের সিদ্ধান্তে বাংলাদেশ কৃতজ্ঞ উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী এসময় আরো অধিক পরিমাণে জনশক্তি রপ্তানি করতে মালয়েশিয়া সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান। তিনি বলেন, মালয়েশিয়া থেকে এলএনজি আমদানির বিষয়ে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরেও আমরা আনন্দিত এবং এটি দুই বন্ধুত্বপূর্ণ দেশের মধ্যে আরো বাণিজ্যিক ও অর্থনৈতিক সম্পৃক্ততার পথ প্রশস্ত করবে।

মন্ত্রী আরো বলেন, মালয়েশিয়া আমাদের এফডিআই এর জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ উৎস দেশ। ২০২২ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত, প্রধানত টেলিকম খাতে মালয়েশিয়া থেকে এফডিআই স্টক দাঁড়িয়েছে ৭৮৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। তিনি মালয়েশিয়াকে বাংলাদেশে অধিক বিনিয়োগ করার জন্য অনুরোধ করেন। বাংলাদেশ মালয়েশিয়ার সাথে দ্বিপাক্ষিক মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি স্বাক্ষর করতে আগ্রহী উল্লেখ করে মন্ত্রী এটি দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য অনুরোধ জানান।

বাংলাদেশ মালয়েশিয়া দ্বিপাক্ষিক মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি এবং আরো অধিক পরিমাণে LNG আমদানি ও জনশক্তি রপ্তানির বিষয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোর সাথে আলোচনা করে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে মালয়েশিয়ার উপ-অর্থমন্ত্রী YB Dato` Indear Moha Shar Abdullah আশা ব্যক্ত করেন। তিনি এ সময় বাংলাদেশকে রাইজিং স্টার হিসাবে অভিহিত করেন। তিনি বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার ভ্রাতৃত্বপূর্ণ কূটনৈতিক সম্পর্কের ভূয়সী প্রশংসা করে এই সম্পর্ক দিন দিন আরো বৃদ্ধি পাবে বলে আশা ব্যক্ত করেন।

পাশাপাশি এক অনির্ধারিত বৈঠকে অর্থমন্ত্রী ভূটানের অর্থমন্ত্রীর সাথে বাংলাদেশ ও ভূটানের দ্বিপাক্ষিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।