পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছয় দিনব্যাপী ভিজিট বাংলাদেশ ২০২২ শুরু

প্রকাশিত : ডিসেম্বর ১৬, ২০২২ , ৫:০৯ পূর্বাহ্ণ

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: ‘ভিজিট বাংলাদেশ’ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি নিয়মিত আয়োজন। এর মাধ্যমে বিদেশি সাংবাদিক, গণমাধ্যম কর্মী, বুদ্ধিজীবী, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, সামাজিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদেরকে বাংলাদেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতি, আর্থসামাজিক অগ্রগতি ইত্যাদি সরাসরি দেখার সুযোগ করে দিতে বাংলাদেশে আমন্ত্রণ জানানো হয়। করোনা মহামারির কারণে ২০১৯ সালের পর এই প্রথম ‘ভিজিট বাংলাদেশ’ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনকূটনীতি অনুবিভাগের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এবারের ‘ভিজিট বাংলাদেশ ২০২২’ এ ১১টি দেশের ১৪ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি অংশ নিচ্ছেন। দেশগুলো হলো; আলজেরিয়া, বাহরাইন, বুলগেরিয়া, কম্বোডিয়া, চীন, ওমান, পোল্যান্ড, পর্তুগাল, রোমানিয়া, স্পেন ও ভিয়েতনাম। অনুষ্ঠানের প্রথম দিন বৃহস্পতিবার তাঁরা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার আলমের সাথে সাক্ষাৎ করেন। মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রী উভয়েই ‘ভিজিট বাংলাদেশ ২০২২’-এ অংশগ্রহণকারীদের বাংলাদেশে উষ্ণ অভ্যর্থনা এবং অনুষ্ঠানে অংশ নেবার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। তাঁরা অংশগ্রহণকারীদেরকে স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনৈতিক জীবন, বাংলাদেশের পররাষ্ট্র নীতি, অর্থনৈতিক অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি, স্বাধীন গণমাধ্যম, রোহিঙ্গা সমস্যা ইত্যাদি সম্পর্কে অবহিত করেন। তাঁরা আশাবাদ ব্যক্ত করেন ‘ভিজিট বাংলাদেশ ২০২২’ এ অংশ নেয়া সকলেই নিজ নিজ দেশে বাংলাদেশের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে ভূমিকা পালন করবেন। ছয় দিনব্যাপী ‘ভিজিট বাংলাদেশ ২০২২’ অনুষ্ঠান চলাকালে বিদেশি অতিথিবৃন্দ ঢাকার ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু জাদুঘর, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর, বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর, শহিদ মিনার এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা পরিদর্শন করবেন। তাঁরা টুঙ্গিপাড়ায় অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন এবং কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবেন। বিদেশি অতিথিগণ তথ্যমন্ত্রীর সাথেও সাক্ষাৎ করবেন এবং একটি শিল্প পার্ক ঘুরে দেখবেন। এছাড়া অতিথিবৃন্দ শুক্রবার অনুষ্ঠিতব্য বাংলাদেশের মহান বিজয় দিবসের প্যারেড অনুষ্ঠানেও উপস্থিত থাকবেন। বিদেশি অতিথিবৃন্দ ‘ভিজিট বাংলাদেশ ২০২২’- এ আমন্ত্রণ জানাবার জন্য পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান এবং বাংলাদেশের চমৎকার আতিথেয়তার প্রশংসা করেন। আগামী ২০ ডিসেম্বর এবারের ভিজিট বাংলদেশ অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটবে। উল্লেখ্য, করোনা মহামারির কারণে ২০১৯ সালের পর এই প্রথম ‘ভিজিট বাংলাদেশ’ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।