বিদ্যুতের মূল্য গ্রাহকদের ইউনিট প্রতি বাড়বে ১৯ পয়সা

প্রকাশিত : জানুয়ারি ১২, ২০২৩ , ৯:৫৩ অপরাহ্ণ

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, সংগৃহীত চিত্র।

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন আইন ২০০৩ এর ধারা ৩৪ক-তে প্রদত্ত ক্ষমতাবলে সরকার, ভর্তুকি সমন্বয়ের লক্ষ্যে জনস্বার্থে বিদ্যুতের খুচরা মূল্য থেকে শতকরা ৫ ভাগ সমন্বয় করেছে। ফলে লাইফ লাইন গ্রাহকদের ইউনিট প্রতি বাড়বে ১৯ পয়সা। বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, বৈশ্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে ভর্তুকি সমন্বয় করতে বিদ্যুতের মূল্য শতকরা ৫ ভাগ সমন্বয় করা হয়েছে। লাইফ লাইন গ্রাহকদের ইউনিট প্রতি ৩ টাকা ৭৫ পয়সার স্থলে ৩ টাকা ৯৪ পয়সা দিতে হবে অর্থাৎ ইউনিট প্রতি ১৯ পয়সা বাড়বে। লাইফ লাইন গ্রাহক রয়েছে ১ কোটি ৬৫ লাখ। দেশে প্রাকৃতিক গ্যাসের স্বল্পতার কারণে আমদানিকৃত তরল গ্যাসের ব্যাপক ব্যবহার, আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধি এবং বৈদেশিক মুদ্রার বিপরীতে টাকা মানের অবমূল্যায়নের ফলে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন কর্তৃক গত ২১ নভেম্বর ২০২২ তারিখে পাইকারি পর্যায়ে প্রায় ২০ শতাংশ বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধি করে। বিতরণ কোম্পানিসমূহ পাইকারি পর্যায়ে প্রায় ২০ শতাংশ মুল্য বৃদ্ধির বিপরীতে তাদের আর্থিক ক্ষতি পূরণের জন্য অন্তত ১৫ দশমিক ৪৩ শতাংশ খুচরা/ভোক্তা পর্যায়ে বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির জন্য আবেদন করে। দেশের সার্বিক আর্থিক অবস্থার বিবেচনায়, বিতরণ কোম্পানিসমূহের আবেদনের বিপরীতে ভোক্তা পর্যায়ে বিদ্যুতের মূল্য ৫ শতাংশ সমন্বয় করা হয়েছে। গ্রাহক পর্যায় খুচরা মূল্যের ভড়িত গড় (Weighted Average) ৭ দশমিক ১৩ টাকা হতে ৭ দশমিক ৪৯ (= ৭ দশমিক ৪৮৬৫) টাকা হবে। জানুয়ারি মাস ২০২৩ হতেই বিদ্যুতের এই খুচরা মূল্য হার কার্যকর হবে।