বিজ্ঞানী ওয়াজেদ মিয়ার অবদান জাতি চিরকাল স্মরণ করবে: মোস্তাফা জব্বার

প্রকাশিত : জুন ১, ২০২২ , ৫:৩৫ অপরাহ্ণ

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া ছিলেন একজন সদালাপী, নির্লোভ ও নিরহংকার মানুষ। তিনি সত্যিকার অর্থেই একজন অতি উঁচু মানের বিজ্ঞানী ছিলেন। সেই বিজ্ঞানমনষ্কতা তাঁর জীবনের প্রত্যেকটি কর্মে প্রতিফলিত হয়েছে। জাতির জন্য নিঃস্বার্থভাবে কাজ করায় ড. ওয়াজেদ মিয়া সবার জন্য আদর্শ হয়ে থাকবেন এবং তাঁর অবদানের জন্য মানুষ তাঁকে চিরকাল স্মরণ করবে। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মঙ্গলবার ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার ১৩তম মৃত‌্যুবার্ষিকী উপলক্ষ‌্যে ঢাকায় মোহাম্মদপুরে বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া স্মৃতি পাঠাগার মিলনায়তনে স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। সভায় বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া স্মৃতি পাঠাগারের উপদেষ্টা ও সাবেক সংসদ সদস‌্য ছবি বিশ্বাসের সভাপতিত্বে সংসদ সদস‌্য শিরিন আহমেদ ও গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ শহীদ উল্লা খন্দকার বক্তৃতা করেন। মন্ত্রী বলেন, আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া ক্ষমতার অনেক কাছাকাছি থেকেও কখনও তা ব্যবহার করেননি। এটাই ছিল তাঁর জীবনের অন্যতম বড় একটি দিক। মেধাবী এই মানুষটি নীরবে, নিভৃতে নিরলস গবেষণায় থেকে দেশের উন্নয়নের জন্য আমৃত্যু কাজ করে গেছেন। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নিয়ে তাঁর স্বপ্ন ছিল। বর্তমানে এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের কাজ চলছে। পরে মন্ত্রী পাঠাগারে তাঁর লেখা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে একটি বইসহ সাতটি বই এবং মুজিব জন্মশতবর্ষ উপলক্ষ‌্যে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে প্রকাশিত শতডাকটিকিটের একটি অ্যালবাম হস্তান্তর করেন।