হাওড়ের ফসল ও মানুষ বাঁচাতে স্থায়ী ব্যবস্থা হচ্ছে : এনামুল হক শামীম

প্রকাশিত : এপ্রিল ৭, ২০২২ , ৭:৫৫ অপরাহ্ণ

সুনামগঞ্জ, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন :পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে হাওড়ের ফসল ও মানুষ বাঁচাতে স্থায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। হাওড়বাসী যেন নির্বিঘ্নে ফসল কেটে ঘরে তুলতে পারে সেজন্য প্রধানমন্ত্রী সার্বক্ষণিক তদারকি করছেন।
বৃহস্পতিবার জেলার ধর্মপাশা, জামালগঞ্জ ও তাহিরপুর উপজেলার বিভিন্ন হাওড়ের ফসল রক্ষা বাঁধ পরিদর্শনের সময় কৃষকদের উদ্দেশে উপমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
শামীম বলেন, সারাদেশে নদীভাঙন রক্ষায় বিভিন্ন স্থায়ী প্রকল্প চলমান রয়েছে এবং নতুন নতুন প্রকল্প হাতে নেয়া হচ্ছে। সারাদেশে সাড়ে পাঁচশ এলাকা নদীভাঙনের শিকার হয়েছে। সবচেয়ে বেশি নদীভাঙন কবলিত ৫৫টি এলাকা চিহ্নিত করা হয়েছে। সেখানে স্থায়ী বাঁধ করা হচ্ছে, বাঁধ প্রশস্তকরণ হচ্ছে, বনায়নও করা হচ্ছে। যেখানে যা করা প্রয়োজন, তাই করা হচ্ছে। স্থানীয় জনগণের সঙ্গে কথা বলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু কন্যা সবসময় বৃহত্তর সিলেটকে গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। তাই সিলেট বিভাগের জন্য করণীয় সকল কিছুই তিনি করে চলছেন।
উপমন্ত্রী বলেন, আগামীতে যাতে হাওড়বাসী শতভাগ ফসল নির্বিঘ্নে ঘরে তুলতে পারেন, ধানের ন্যায্যমূল্য পান, উৎপাদন খরচ কমাতে পারেন; সে বিষয়েও প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করা হবে। বাংলাদেশ এখন বিদেশেও খাদ্য রফতানি করে। এতে হাওড়ের কৃষকের বড় অবদান রয়েছে। তাই হাওরের সমস্যা স্থায়ীভাবে সমাধানের জন্য পরিকল্পনা গ্রহণ করা হচ্ছে।
এ সময় সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য শামীমা শাহরিয়ার, পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক ফজলুর রশীদ, প্রধান প্রকৌশলী এস.এম শহিদুল আলম ও সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন উপস্থিত ছিলেন।