জাতির পিতা ছিলেন শ্রমজীবী মেহনতি মানুষের প্রেরণা

প্রকাশিত : মে ১, ২০২২ , ৯:৪৭ অপরাহ্ণ

ঢাকা,ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন:শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান বলেছেন, জাতির পিতা ছিলেন শ্রমজীবী মেহনতি মানুষের প্রেরণা। মহান মে দিবস উপলক্ষ্যে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে একথা বলেন। রোববার শ্রম প্রতিমন্ত্রীর এর নেতৃত্বে মন্ত্রণালয় এবং এর অধীনস্থ দপ্তর, অধিদপ্তর, সংস্থা ও বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, শ্রমজীবী মেহনতি মানুষের অধিকার আদায়ে বঙ্গবন্ধু সোচ্চার ছিলেন এবং শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ে আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন। মন্নুজান সুফিয়ান আরও বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ১৯৭২ সালে মে দিবসকে শ্রমিক সংহতি দিবস হিসেবে রাষ্ট্রীয়ভাবে পালনের স্বীকৃতি প্রদান করেন। শ্রমিকের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠায় মহান স্বাধীনতা লাভের পরের বছরই জাতির পিতার প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা- আইএলও এর সদস্য পদ লাভ করে। আজ আইএলও’র সবক’টি মৌলিক কনভেনশন অনুসমর্থনকারী দেশ বাংলাদেশ। জাতির পিতার ব্যক্তিগত উদ্যোগে ১৯৭২ সালে এক দিনেই আইএলও’র পাঁচটি মৌলিক কনভেনশনসহ ২৯টি কনভেনশন অনুসমর্থন করেন। এ জন্যই শ্রম মন্ত্রণালয় এবং শ্রমিক সংগঠনগুলো মহান মে দিবসের সকালে জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন বলে তিনি জানান। শ্রম ও কর্মসংস্থান সচিব মো. এহছানে এলাহী, অতিরিক্ত সচিব, যুগ্ম-সচিবগণ’ শ্রম অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের মহাপরিদর্শক, জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি নুর কুতুব আলম মান্নানসহ বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।