ভবিষ্যৎ মহামারি মোকাবিলায় বিশ্ব প্রতিনিধিদের সচেতনতা বাড়াতে হবে

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ৬, ২০২২ , ৯:৫৮ অপরাহ্ণ

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: গতকাল ৫ সেপ্টেম্বর থেকে পাঁচ দিনব্যাপী বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার South East Asian Regional Organization (SEARO) এর আঞ্চলিক সভা ভুটানের পারো শহরে শুরু হয়েছে। এই সম্মেলনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সহযোগিতায় SEARO-ভুক্ত দেশগুলো ভবিষ্যতে মহামারি মোকাবিলা, কোভিড পরিস্থিতি পর্যালোচনা, সার্বজনীন স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনাসহ অসংক্রামক ব্যাধি মোকাবিলার কৌশল নির্ধারণসহ সার্বিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা নিয়ে একযোগে কাজ করার কৌশল নির্ধারণ করবে।
সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে কার্যক্রম উদ্বোধন করেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং। সভায় SEARO ভুক্ত ১০টি দেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রীদের মধ্যে ৮টি দেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী অংশগ্রহণ করেন। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক সভায় ১ম দিনের কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেন। সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানান, ভবিষ্যতে মহামারি মোকাবিলায় বিশ্বের শক্তিধর দেশগুলোকে সমন্বিত পদক্ষেপ নিতে হবে এবং একইসাথে স্বাস্থ্য গবেষণায় আরো জোরালো ভূমিকা রাখতে হবে। এছাড়া কোভিড মোকাবিলায় বাংলাদেশের পক্ষ থেকে কি কি পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে তা তুলে ধরেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। সভায় কোভিড মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফলপ্রসূ দিক নির্দেশনা ও সার্বিক পরামর্শের কথাও উল্লেখ করেন তিনি।
উল্লেখ্য, পাঁচ দিনব্যাপী আঞ্চলিক সভায় সদস্য দেশগুলো উল্লেখযোগ্য সাফল্যের কৌশল অন্য দেশে কিভাবে কার্যকরভাবে ব্যবহার করা যায় সে বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।
সভায় বাংলাদেশের পক্ষে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রীর নেতৃত্বে ৬ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল অংশগ্রহণ করছে।