কোরবানির বর্জ্য অপসারণে সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছুটি বাতিল

প্রকাশিত : জুন ১৪, ২০২৪ , ৯:২৩ অপরাহ্ণ

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম, সংগৃহীত চিত্র।

আশিষ চৌধুরী, বিশেষ প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম বলেছেন, কোরবানির বর্জ্য অপসারণের সঙ্গে জড়িত ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। এছাড়া, সুষ্ঠুভাবে কোরবানির বর্জ্য অপসারণের জন্য ডিএনসিসিতে কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে। পাশাপাশি ওয়ার্ড ভিত্তিক তদারকি টিম গঠন করা হয়েছে। নির্ধারিত সময়ে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ করতে সবাইকে সচেষ্ট থাকতে হবে। মেয়র বৃহস্পতিবার (১৩ জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ) রাজধানীর গুলশান-২ নগর ভবনের হলরুমে ২য় পরিষদের ২৮তম কর্পোরেশন সভায় গৃহীত এ সকল সিদ্ধান্তের কথা জানান।
মেয়র বলেন, গত বছর ঈদে কোরবানির বর্জ্য অপসারণে কাউন্সিলরদের নেতৃত্বে ডিএনসিসি সফল হয়েছে। পূর্ব ঘোষিত ৮ ঘণ্টারও কম সময়ে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ করতে সক্ষম হয়েছিল। এবছর ডিএনসিসির টার্গেট ৬ ঘন্টায় কোরবানির বর্জ্য অপসারণ করা। এ লক্ষ্যে সকল কাউন্সিলর, কর্মকর্তা ও পরিচ্ছন্ন কর্মীরা সার্বক্ষণিক মাঠে থাকতে হবে। মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ইতিমধ্যে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ব্যাপক কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়েছে। এডিস মশা নিয়ন্ত্রণ ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে কাউন্সিলরদের আরো বেশি উৎসাহী করার জন্য এ বিষয়ে সফল কাউন্সিলরদের স্বর্ণপদক দেবে ডিএনসিসি। ডিএনসিসির যে সকল ওয়ার্ডগুলোতে কেবল শূন্য সংখ্যক ডেঙ্গু-রোগী থাকবে তাদের এ পদক দেয়া হবে। সভায় ডিএনসিসির সচিব মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিকের সঞ্চালনায় অন্যান্যের সঙ্গে ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মীর খায়রুল আলম, প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগে. জেনা. মোঃ মঈন উদ্দিন, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগে. জেনা. ইমরুল কায়েস চৌধুরী, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ ফিদা হাসান, ডিএনসিসির সকল বিভাগীয় প্রধান ও ডিএনসিসির কাউন্সিলরবৃন্দ এবং অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

[wps_visitor_counter]