ভারতের ঝাড়খণ্ডে নির্মাণাধীন আদানী বিদ্যুৎ কেন্দ্র পরিদর্শন করলেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত : জানুয়ারি ৩, ২০২৩ , ৯:১৬ অপরাহ্ণ

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, সংগৃহীত চিত্র।

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ জানিয়েছেন, ভারতের ঝাড়খণ্ডে নির্মাণাধীন আদানী বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে মার্চ মাস হতে বিদ্যুৎ বাংলাদেশে আসবে। ভারত থেকে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ দেয়ার জন্য ইতোমধ্যে ডেডিকেটেড সঞ্চালন লাইন নির্মাণ করা হয়েছে। মার্চের মাঝামাঝি সময় হতে বিদ্যুৎ আমদানি করা সম্ভব হবে। প্রতিমন্ত্রী মঙ্গলবার আদানী পাওয়ার লিমিটেড, ইন্ডিয়া কর্তৃক ভারতের ঝাড়খণ্ডে নির্মাণাধীন ১৬০০ (২৮০০) মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে এসব কথা জানান। প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রথম ইউনিট হতে ৭৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ মার্চের মাঝামাঝি পাওয়া যেতে পারে। আগামী গ্রীষ্মের চাহিদা পূরণে আরো বিদ্যুৎ প্রয়োজন। তাই জ্বালানির বিকল্প উৎসও খুঁজছে সরকার। তিনি বলেন, সাশ্রয়ী মূল্যে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহকে অগ্রাধিকার দিয়ে কাজ করছে সরকার। উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে বিদ্যুৎ বিভাগ ও আদানী পাওয়ার লিমিটেড, ইন্ডিয়ার মধ্যে স্বাক্ষরিত চুক্তির আওতায় আদানী পাওয়ার লিমিটেড ভারতের ঝাড়খণ্ডে ১৬০০ (২৮০০) মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করছে। বাংলাদেশ প্রান্তে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও বগুড়ায় দুইটি সাবস্টেশন ও অন্যান্য সঞ্চালন লাইন নির্মাণ করেছে পিজিসিবি। পরিদর্শনকালে অন্যান্যের মাঝে বিদ্যুৎ সচিব মোঃ হাবিবুর রহমান ও বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মোঃ মাহবুবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।