ভর্তুকি মূল্যে খাদ্য পণ্যের রেশনিং এর ব্যবস্থা প্রণয়ন করতে হবে

প্রকাশিত : জানুয়ারি ২৪, ২০২৩ , ৫:৩৬ অপরাহ্ণ

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: ‘মূল্যস্ফীতির ক্রমবর্ধমান ঊর্ধ্বগতি জনজীবনে সংকট তৈরি করছে। খাদ্য-পণ্যসহ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির হার ১১% শতাংশের মত। এর সাথে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি ও বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব সাধারণ মানুষের ওপর পড়বে। যা সীমিত আয়ের মানুষের পক্ষে বহন করা অত্যন্ত কষ্টসাধ্য। মূল্যস্ফীতির এই পরিস্থিতিতে দরিদ্র, মধ্যবিত্ত তথা শ্রমজীবী মানুষের আয় বাড়ছেনা। শ্রমজীবী মানুষদের বাঁচাতে ভর্তুকি মূল্যে খাদ্য-পণ্যের রেশনিং এর ব্যবস্থা প্রণয়ন করতে হবে।’
মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির ঢাকা মহানগর উত্তরের সাধারণ সভার প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা একথা বলেন। তিনি আরও বলেন, গ্যাস-বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি নয়, ঐ দুই প্রতিষ্ঠানের দুর্নীতি ও সিস্টেম লস দূর করে মূল্য কমিয়ে আনা সম্ভব। ওয়ার্কার্স পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তরের আহবায়ক কমরেড সাদাকাত হোসেন খান বাবুল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সাধারণ সভা বক্তব্য রাখেন, পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য কমরেড কামরূল আহসান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহবায়ক কমরেড কিশোর রায়, কমরেড বেনজির আহমেদ, কমরেড জাকির হোসেন, পল্লবী থানার নেতা কমরেড আবুল কালাম, কমরেড জামিরুল ইসলাম ডালিম, কমরেড আবুল কালাম আজাদ, কমরেড ইয়াতুন নেসা রুমা প্রমুখ। পল্লবীর ১০ নম্বর সেকশনের বেনারশী পল্লীতে অনুষ্ঠিত সভায় আগামী ২৮ জানুয়ারি ওয়ার্কার্স পার্টির ঢাকা বিভাগীয় সমাবেশ সফল করা জন্য ঢাকাবাসীকে আহবান জানান হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তির।