ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে স্ত্রীকে হত্যা করেছে স্বামী

প্রকাশিত : আগস্ট ১০, ২০২২ , ৬:৪৬ অপরাহ্ণ

হেলালী ফেরদৌসি, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে পারুল বেগম (৩৫) নামের এক গৃহবধূকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার দিনগত রাতে উপজেলার ৬ নম্বর ত্রিলোচনপুর ইউনিয়নের চাঁদবা গ্রামে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহতের স্বামীর নাম মতিয়ার রহমান। তাদের দুই মেয়ে রয়েছে। এক মেয়ে প্রতিবন্ধী, আরেক মেয়ের বিয়ে হয়ে গেছে। এদিকে পরিবারের সদস্যরা বলছে, স্বামী-স্ত্রীর গোলযোগের সময় তার ছেলে ঠেকাতে যায়। এসময় ছেলে ধাক্কায় মা ঘরের দেওয়ালে লেগে আঘাতপ্রাপ্ত হলে অসুস্থ হয়ে পড়ে। নিহতের প্রতিবেশী হযরত আলী ও আলম হোসেন জানান, প্রায়ই স্বামী স্ত্রীর মধ্যে সংসারের ছোট ছোট বিষয় নিয়ে ঝগড়া হতো। সম্ভবত পারিবারিক কলহের জের ধরেই গভীর রাতে পিটিয়ে ও কুপিয়ে পারুল বেগমকে হত্যা করে। ত্রিলোচনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম ঋতু বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে প্রায়ই তাদের মধ্যে ঝগড়া হতো। মঙ্গলবার রাতে তর্ক-বিতর্কের এক পর্যায়ে পারুলকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করে মতিয়ার রহমান। এরপর পারুলের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে মতিয়ার রহমান পালিয়ে যান। কালীগঞ্জ থানার ওসি আব্দুর রহিম মোল্লা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ভোর রাতের দিকে পারিবারিক কলহের জের ধরে মতিয়ার রহমান তার স্ত্রীকে লাঠি দিয়ে মাথায় আঘাত করে। এরপর সে গুরু অসুস্থ হয়ে পড়ে মারা যায়। তার স্বামী পলাতক রয়েছে। তবে এখনই বলা যাচ্ছে না কীভাবে তার মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। নিহত পারুলের মাথায় ও হাতে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। স্বামী মতিয়ার রহমানকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।