মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশ চলছে বলেই দেশের এত উন্নয়ন:মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

প্রকাশিত : মে ২৩, ২০২২ , ১১:০৯ অপরাহ্ণ

কক্সবাজার, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন:মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি প্রায় ২৯ বছর রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থেকে দেশকে অনেক পিছিয়ে দিয়েছিল । প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বর্তমানে দেশ চলছে বলেই বাংলাদেশের এত উন্নয়ন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ আজ আর তলাবিহীন ঝুড়ি নয়, বাংলাদেশ আজ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। সোমবার কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা প্রদানকালে মন্ত্রী এ কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা এলডিসি হতে উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় উন্নীত হয়েছি । নির্বাসিত ’৭২ এর সংবিধানে ফেরত এসেছি এবং ’৭১ এর মানবতাবিরোধী অপরাধ ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যার বিচার হয়েছে । নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ, পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প, কর্ণফুলী টানেল, মেট্রোরেল নির্মাণ, রাস্তা- ঘাট নির্মাণ , এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ, গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণ, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট, মাতারবাড়ি প্রকল্প, সমুদ্র বিজয়, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ২১ ফেব্রুয়ারি স্বীকৃতি, প্রায় ১২ লাখ রোহিঙ্গার আশ্রয়দানের মাধ্যমে মানবতার নবদিগন্ত উন্মোচন বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে। বীর মুক্তিযোদ্ধারা বিনামূল্যে হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা পাচ্ছেন জানিয়ে মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, জেলা, উপজেলাসহ দেশের বিশেষায়িত হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসা, ওষুধ, টেস্ট, যা প্রয়োজন তার সবই দেওয়া হচ্ছে। মন্ত্রী আরও বলেন, বধ্যভূমিগুলোও আমরা সংরক্ষণ করছি। এছাড়া যদি কোনো মুক্তিযোদ্ধা মারা যান, তাঁদের একই রকম ডিজাইনের কবর দেওয়া হবে, যেন ৫০ বছর পরও একটি কবর দেখে বোঝা যায়, এটি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার কবর। কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ মামুনুর রশীদ-এর সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় কক্সবাজার-২ আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব রঞ্জিত কুমার দাস, জেলা পুলিশ সুপার মোঃ হাসানুজ্জামান পিপিএম, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফরিদুল ইসলাম চৌধুরীসহ স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ উপস্থিত ছিলেন।