দ্রুত সময়ের মধ্যে নিরবচ্ছিন্ন ও সাশ্রয়ী বিদ্যুৎ সরবরাহ করা প্রধান চ্যালেঞ্জ

প্রকাশিত : মে ৩১, ২০২২ , ৬:০৭ অপরাহ্ণ

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, দ্রুত সময়ের মধ্যে নিরবচ্ছিন্ন ও সাশ্রয়ী বিদ্যুৎ সরবরাহ করা অন্যতম প্রধান চ্যালেঞ্জ। বৈশ্বিক পরিস্থিতি যাইহোক জনগণকে স্বস্তিতে রাখাই সরকারের লক্ষ্য। ফুয়েল মিক্সে নতুন নতুন জ্বালানি সম্পৃক্ত হতে যাচ্ছে এবং বৃহৎ বৃহৎ বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলো গ্রিডে আসছে, যা বিদ্যুতের সাশ্রয়ী মূল্য নিশ্চিত করবে। প্রতিমন্ত্রী মঙ্গলবার বিদ্যুৎ ভবনে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠান ও সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্যকালে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, হাইড্রোজেন পলিসি সমন্বিত মহাপরিকল্পনায় থাকবে; যা ক্লিন এনার্জির প্রসারে ব্যাপক অবদান রাখবে। প্রধানমন্ত্রীর দুর্দান্ত সাহস ও দূরদর্শী সিদ্ধান্তে দেশে শতভাগ বিদ্যুতায়ন হয়েছে। শতভাগ বিদ্যুতায়নের মাধ্যমে দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ এবং মুজিববর্ষে শতভাগ বিদ্যুতায়ন সফলভাবে সম্পন্ন করায় এবছর বিদ্যুৎ বিভাগ ‘স্বাধীনতা পুরস্কার- ২০২২’ এ ভূষিত হওয়ার বিরল সম্মান অর্জন করেছে।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিদ্যুতের সাশ্রয়ী ব্যবহারের লক্ষ্যে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী যন্ত্রপাতি ব্যবহারের জন্য গ্রাহকদের উৎসাহিত করা হচ্ছে। ২০৪১ সালের মধ্যে নবায়ণযোগ্য জ্বালানি হতে ৪০ ভাগ বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। পরিষ্কার জ্বালানির ব্যবহার উত্তরোত্তর বাড়ানোর উদ্যোগ অব্যাহত রয়েছে। এর ফলে কার্বন নিঃসরণও হ্রাস পাবে। এ সময় প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সাফল্য, বিদ্যুৎ খাতের বিভিন্ন প্রকল্প ও আগামী দিনের প্রযুক্তি, বিদ্যুৎ ও জ্বালানির সাশ্রয়ী ব্যবহার ও সাশ্রয়ী মূল্য, ক্লিন এনার্জি ও নবায়ণযোগ্য জ্বালানি, বিদ্যুৎ আমদানি ও মেগা প্রকল্প ইত্যাদি বিষয় নিয়ে সাংবাদিকদের সাথে আলোচনা করেন। এ সময় অন্যান্যের মাঝে পিডিবির চেয়ারম্যান মোঃ মাহবুবুর রহমান বক্তব্য রাখেন।