শিল্প মন্ত্রণালয়ে ই লাইব্রেরি এবং ডে কেয়ার সেন্টার উদ্বোধন

প্রকাশিত : ডিসেম্বর ১৮, ২০২২ , ৫:৪৬ অপরাহ্ণ

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন এমপি রবিবার রাজধানীর মতিঝিলস্থ শিল্প মন্ত্রণালয় ভবনে অত্যাধুনিক ই-লাইব্রেরি এবং ডে-কেয়ার সেন্টার উদ্বোধন করেছেন। শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার এমপি, শিল্পসচিব জাকিয়া সুলতানাসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন। ই-লাইব্রেরি উদ্বোধন করে শিল্পমন্ত্রী বলেন, এটি শিল্প মন্ত্রণালয়ের মতো একটি বড় ও গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বুদ্ধিবৃত্তিক চর্চা/পাঠ্যাভ্যাস বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে ও জ্ঞান অনুসন্ধানে উদ্বুদ্ধ করবে। ডে-কেয়ার সেন্টার উদ্বোধন করে শিল্পমন্ত্রী বলেন, শিল্প মন্ত্রণালয়ের পঞ্চম তলায় স্থাপত ডে-কেয়ার সেন্টারটিতে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অফিস চলাকালীন সময়ে তাদের ছোট শিশুদের রাখতে পারবেন। এতে তারা শিশু নিয়ে দুশ্চিন্তামুক্ত হয়ে কাজ করতে পারবেন। ই-লাইব্রেরি উদ্বোধনকালে শিল্পসচিব জাকিয়া সুলতানা বলেন, বাংলাদেশে সরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহের মাঝে এ ধরণের উদ্যোগ প্রথম। মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রকাশিত Article/Journal/Publication ই-লাইব্রেরিতে সংরক্ষণ করা যাবে। ই-লাইব্রেরি একটি ইন্টেলেকচুয়াল স্টোরেজ হিসেবে কাজ করবে। এছাড়া, শিল্প মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রকাশিত বিভিন্ন প্রকাশনা ও ম্যাগাজিন সহজে বিশ্বের যে কেউ দেখতে ও পড়তে পারবে যা মন্ত্রণালয়ের ব্র্যান্ডিং সহজতর করবে। উল্লেখ্য, শিল্প মন্ত্রণালয়ের নিচতলায় স্থাপিত ই-লাইব্রেরি একটি অত্যাধুনিক ও প্রযুক্তিনির্ভর লাইব্রেরি, যেখানে মনোরম পরিবেশে মুদ্রিত বইয়ের পাশাপাশি ইলেকট্রনিক বই বা ই-বুক পড়ার সুবিধা থাকছে। ৯৫০ বর্গফুট জায়গার এই লাইব্রেরিতে প্রায় ২০০০ বইয়ের সমাহার থাকবে যা ই-লাইব্রেরি ওয়েবসাইট ব্যবহার করে অনুসন্ধান করা যাবে। সরকারি বন্ধের দিন ব্যতীত অফিস চলাকালীন লাইব্রেরিতে বই পড়া ও বই ইস্যু করা যাবে। Individual ID/Password এর মাধ্যমে মন্ত্রণালয়ের প্রত্যেক কর্মকর্তা/কর্মচারী ই-লাইব্রেরিতে যুক্ত হয়ে ক্যাটাগরিভিত্তিক বই অনুসন্ধানের (Search) পাশাপাশি বই ধার নিতে বা পড়তে পারবে। ডিজিটাল পদ্ধতিতে লাইব্রেরি ম্যানেজমেন্ট করায় খুব সহজে বই উত্তোলন/জমাদান সংক্রান্ত ডাটাবেইজ মেইনটেনই করা যাবে এবং কার কাছে কতটি বই ফেরত দেয়ার জন্য Pending আছে তার তথ্য খুব সহজে বের করা যাবে।