রাষ্ট্রপতি শিল্প উন্নয়ন পুরস্কার উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রপতির বাণী

প্রকাশিত : জানুয়ারি ৪, ২০২৩ , ৫:০৬ অপরাহ্ণ

রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ, সংগৃহীত চিত্র।

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ বৃহস্পতিবার ৫ জানুয়ারি ‘রাষ্ট্রপতি শিল্প উন্নয়ন পুরস্কার ২০২০’ উপলক্ষ্যে নিম্নোক্ত বাণী প্রদান করেছেন :
“শিল্প মন্ত্রণালয় কর্তৃক শিল্পায়নে উল্লেখযোগ্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ‘রাষ্ট্রপতি শিল্প উন্নয়ন পুরস্কার ২০২০’ প্রদানের উদ্যোগকে আমি স্বাগত জানাই। দেশের সার্বিক উন্নয়নে টেকসই ও পরিবেশবান্ধব শিল্পায়ন অন্যতম নিয়ামক। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীনতার মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৫৬ সালে কোয়ালিশন সরকারের শিল্প, বাণিজ্য, শ্রম, দুর্নীতি দমন ও গ্রাম সহায়তা দপ্তরের মন্ত্রী থাকাকালে অর্থনৈতিক বৈষম্য নিরসনকল্পে তৃণমূল পর্যায়ে শ্রমঘন শিল্প প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করে দেশে শিল্পায়নের সূচনা করেছিলেন। স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে তিনি দেশীয় কাঁচামাল নির্ভর শিল্প কারখানা গড়ে তোলার মাধ্যমে শিল্পায়নের ধারা আরো এগিয়ে নেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার বিগত এক যুগে বাংলাদেশে শিল্পায়ন, ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়োগ প্রসারে নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। শিল্প কারখানায় আধুনিক ও পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তির প্রয়োগ বৃদ্ধিতে দেশে বিশ্বমানের শিল্পপণ্য উৎপাদন হচ্ছে এবং রপ্তানি বাণিজ্যে বাংলাদেশের অবদান ক্রমেই সুসংহত হচ্ছে। পদ্মা সেতু কর্ণফুলী টানেলের মতো যোগাযোগ অবকাঠামো নির্মাণ, বিনিয়োগ সহায়ক কর ও শুল্ক কাঠামো, বিদেশি বিনিয়োগের জন্য বিশেষ প্রণোদনাসহ সরকারের বিভিন্ন উদ্যোক্তাবান্ধব ও সৃজনশীল কর্মসূচির ফলে বাংলাদেশ বিশ্বে বিনিয়োগের জন্য অন্যতম আকর্ষণীয় গন্তব্যে পরিণত হয়েছে। চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সরকারি-বেসরকারি সমন্বিত প্রয়াসে জালানি সাশ্রয়ী প্রযুক্তির ব্যবহার, জ্ঞানভিত্তিক ও উদ্ভাবনী উদ্যোগ, দীর্ঘমেয়াদী নীতি-কৌশল ও কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন অতীব জরুরি। বেসরকারি খাতে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি ও সৃজনশীলতাকে উৎসাহিত করার লক্ষ্যে শিল্প মন্ত্রণালয় বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ‘রাষ্ট্রপতি শিল্প উন্নয়ন পুরস্কার’ প্রদান করে থাকে। এ বছর সম্মাননাপ্রাপ্ত শিল্পোদ্যোক্তাদের আমি আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি। রাষ্ট্রীয়ভাবে শিল্প উদ্যোক্তাদের সম্মাননা প্রদান আধুনিক প্রযুক্তিভিত্তিক শিল্পায়নের চলমান ধারাকে সুসংহত করবে এবং সামগ্রিক অর্থনৈতিক অগ্রগতির প্রক্রিয়াকে আরো বেগবান করবে – এটাই সকলের প্রত্যাশা।
আমি ‘রাষ্ট্রপতি শিল্প উন্নয়ন পুরস্কার ২০২০’ প্রদান অনুষ্ঠানের সাফল্য কামনা করি।
জয় বাংলা।
খোদা হাফেজ, বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।”